প্রফেসর বিকিরণ নিজের আলোয় আলোকিত

হীরক জয়ন্তী ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে অনুপম সেন

বৃহস্পতিবার , ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ at ৫:৪৪ পূর্বাহ্ণ

চবির পদার্থবিদ্যা বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়া ৭৫তম জন্মজয়ন্তী ও আজীবন সম্মাননা অনুষ্ঠান গত ১১ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম হোটেল সৈকতের কনভেনশন হলে অনুষ্ঠিত হয়। হীরক জয়ন্তী ও আজীবন সম্মাননা পর্ষদ আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন। ইউএসটিসির সাবেক উপাচার্য, হীরক জয়ন্তী ও আজীবন সম্মাননা পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ডা. প্রভাত চন্দ্র বড়ুয়ার সভাপতিত্বে এতে মুখ্য আলোচক ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।
বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য অধ্যক্ষ ড. প্রনব কুমার বড়ুয়া, বিজিসি ট্রাষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. সরোজ কান্তি সিংহ হাজারী । উদ্ধোধনী সংগীত পরিবেশন করেন ত্রিদিব বড়ুয়া রানা। একুশে পদকপ্রাপ্ত ড. বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়াকে অতিথিবৃন্দ ও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ হতে ফুল, ক্রেস্ট ও উপহার প্রদান করা হয়। স্বাগত বক্তব্য রাখেন হীরক জয়ন্তী, আজীবন সম্মাননা পর্ষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শেখ এ রাজ্জাক রাজু। জয়ন্তী নায়কের জীবনী পাঠ করেন ভাস্কর ডি কে দাশ মামুন।
প্রধান অতিথি বলেন, ড. বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়া জ্ঞানে ও গুণে একজন পরিপূর্ণ মানুষ। তিনি সারাজীবন শিক্ষার আলো দিয়ে গেছেন। সমাজের জন্য দেশের জন্য আজ অবদান রেখেছেন বলেই রাস্ট্রীয় সম্মাননা একুশে পদক পেয়েছেন। তিনি বলেন একমাত্র শিক্ষার মাধ্যমেই দেশ ও জাতির মঙ্গল ও উন্নতি করা যায়।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার সভাপতি সুনন্দ মহাথের, বুদ্ধপ্রিয় মহাথের, অধ্যাপক উপানন্দ মহাথের, প্রকৌশলী মৃনাল কান্তি বড়ুয়া, অধ্যক্ষ তরুন বড়ুয়া, প্রধান শিক্ষক বিমল বড়ুয়া, প্রকৌশলী পুলক কান্তি বড়ুয়া, ডা. দিবাকর বড়ুয়া, জয়কেতু বড়ুয়া, সনত তালুকদার, দিপক তালুকদার, কবি বিশ্বপ্রতাপ বড়ুয়া, প্রদীপ কুমার বড়ুয়া আনন্দ,প্রনব রাজ বড়ুয়া, প্রকৌশলী পরিতোষ বড়ুয়া, ডা. পরিতোষ বড়ুয়া, বিমান বড়ুয়া, এডভোকেট সাতকড়ি বড়ুয়া, বিনয় ভুষন বড়ুয়া, দুলাল কান্তি বড়ুয়া, শফিউল আলম, দিদারুল আলম, সাহেদা আকতার জাহান চৌধুরী, অধ্যক্ষ শিমুল বড়ুয়া, পুস্পেন বড়ুয়া কাজল , অধ্যাপক সুব্রত বড়ুয়া প্রমুখ। সব শেষে ড. বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়ার জীবন ও কর্ম নিয়ে একটি ডকুমেন্টারী মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে দেখানো হয়। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন চম্পাকলি , সঞ্চীতা তালুকদার ও শুক্লা বড়ুয়া। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, গুনীজনকে সম্মান জানানো হলে সমাজে গুনীজন তৈরী হবে। ড. বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়া শিক্ষকতার পাশাপাশি দেশ ও সমাজের জন্য অবদান রেখেছেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x