প্রধান আসামি অপু ফেনীতে গ্রেফতার

হামিদ হত্যা

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

বৃহস্পতিবার , ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ at ৫:৪৪ পূর্বাহ্ণ
308

অবশেষে রাঙ্গুনিয়ার চাঞ্চল্যকর হামিদ হত্যা মামলার প্রধান আসামি সন্ত্রাসী নাগিব মাহফুজ অপু সিকদার (২৬) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার ১ মাস ৪ দিন পর গতকাল বুধবার ভোররাতে তাকে ফেনীর রেল স্টেশন থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সে একই দিন সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জয়ন্ত রানী রায়ের আদালতে ১৬৪ ধারায় হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দেয় এবং নিজের দোষ স্বীকার করে। জবানবন্দির পর তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রাঙ্গুনিয়া থানার উপপরিদর্শক মো. ইসমাঈল হোসেন বলেন, গোপন সংবাদে গত মঙ্গলবার রাতে ফেনীর রেল স্টেশন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ভোররাতে তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। তাকে ঘটনাস্থলে নিয়ে গিয়ে মামলার আরো বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। এসময় চোখ বেঁধে জনসম্মুখে হাজির করে তার অপরাধের স্বীকারোক্তি নেওয়া হয়। এসময় তার বাবাও উপস্থিত ছিলেন। সে দোষ স্বীকার করে তার কৃতকর্মের জন্য সকলের কাছে হাত জোড় করে মাফ চেয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ও তার সহযোগিরা মিলে হামিদকে সারারাত নির্যাতন চালিয়ে হত্যার পর লাশ গুম করার পরিকল্পনার কথা স্বীকার করেছে। এর আগে ঘটনার দুই দিন পর ২৬ নভেম্বর মামলার এজাহারভুক্ত আসামি গিয়াস উদ্দিন, চলতি মাসের ৬ ডিসেম্বর ঘটনার সাথে জড়িত ইয়াবা সরবরাহকারী ইলিয়াছ ও ২৬ ডিসেম্বর অপুর সেকেন্ড ইন কমান্ড সাইফুল ইসলাম টিপুকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আদালতের ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে তারা সকলেই খুনের সাথে জড়িত থাকার কথা ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনাসহ স্বীকার করেন।

মামলার বাদী মোহাম্মদ সোলায়মান বলেন, আসামিরা গ্রেফতার হলেও এখনো ৬ জন আসামি বাইরে রয়েছে। তাদেরকে আটক করাসহ গ্রেফতারকৃতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। যাতে এই ধরণের অপু সিকদার আর কোথাও সৃষ্টি না হয়।

রাঙ্গুনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ ইমতিয়াজ মো. আহসানুল কাদের ভুঁঞা জানান, হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত মামলার প্রধান আসামি অপুসহ চার আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আদালতে লিখিত স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে তারা। শীঘ্রই বাকী আসামিরাও আইনের আওতায় আসবে।

উল্লেখ্য, গত ২৩ নভেম্বর সকালে হামিদকে তার বেতাগীর নিজ বাড়ি থেকে ডেকে এনে মোবাইল ও ল্যাপটপ চুরির কথা বলে অপুর আস্তানায় সারারাত নির্যাতন চালিয়ে তাকে হত্যা করা হয়। এই ঘটনায় হামিদের খালু পোমরা ইউনিয়নের মাইজপাড়া গ্রামের মোহাম্মদ সোলায়মান বাদী হয়ে ২৪ নভেম্বর রাতে রাঙ্গুনিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এতে ৯ জনকে আসামি করা হলে পুলিশি অভিযান চালিয়ে এখন পর্যন্ত মামলার প্রধান আসামি অপুসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে।

x