প্রত্যাবাসন ব্যর্থতায় বাংলাদেশকে দায়ী করছে মিয়ানমার

উখিয়া প্রতিনিধি

রবিবার , ২৫ আগস্ট, ২০১৯ at ৪:৪২ পূর্বাহ্ণ
784

রোহিঙ্গা ফেরত কার্যক্রমে দ্বিতীয়বারও ব্যর্থ হওয়ার জন্য বাংলাদেশকে দায়ী করছে মিয়ানমার। গতকাল শনিবার দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমসহ সেখানকার মিডিয়ার এ ব্যাপারে বাংলাদেশ আন্তরিক নয় বলে জানায়। ২৩ আগস্ট মিয়ানমার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সঠিক কাগজপত্র দিতে না পারার দাবি করা হয়।
তবে বাংলাদেশ নয়, মিয়ানমারের কারণেই প্রত্যাবাসন শুরু করা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। ২২ আগস্ট প্রায় সাড়ে তিন হাজার রোহিঙ্গার মিয়ানমারে ফেরার মাধ্যমে দ্বিতীয় দফায় প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু রোহিঙ্গাদের অনিচ্ছা ও নানা শর্তের মুখে আবারো তা ভেস্তে যায়। সব ধরনের প্রস্তুতি সত্ত্বেও দ্বিতীয় দফার উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে না পারার জন্য আবারো বাংলাদেশকেই দুষেছে মিয়ানমার। রোহিঙ্গাদের যাচাই বাছাইয়ে সঠিক কাগজপত্র দিতে না পারায় প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ব্যর্থ হয় বলে দাবি দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের। তবে এ নিয়ে এখনও বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষের কোন মতামত পাওয়া যায়নি বলে বলা হয়েছে।
চারশ’ হিন্দু রোহিঙ্গাকে ফিরিয়ে দিতে মিয়ানমারের পক্ষ থেকে বারবার অনুরোধ করা সত্বেও বাংলাদেশ তা প্রত্যাখ্যান করেছে বলেও দাবি তাদের। তবে জাতিসংঘ বলছে বাংলাদেশ নয়, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে প্রস্তুত নয় মিয়ানমার সরকার। উত্তরাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি রোহিঙ্গাদের ফেরার অনুকূল নয়।

x