পেঁয়াজের দাম আর কত বাড়লে সরকারের টনক নড়বে

গণ-অধিকার ফোরামের প্রতিবাদ সভায় বক্তারা

সোমবার , ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ at ৫:১০ পূর্বাহ্ণ
10

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি নিত্যপ্রয়োজনীয় পেঁয়াজ, রসুন, আদা ও চাউলের বাজার নিয়ন্ত্রণে সম্পূর্ণরূপে ব্যর্থ হয়ে জনগণের উপর স্টিমরোলার চালাচ্ছে। নিরীহ বাংলাদেশের জনগণ আজ বড়ই দিশেহারা। মনে হচ্ছে আমরা ৭৪ দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। এই অবস্থা থেকে উত্তোরনে সরকারের দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ এবং বাণিজ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ জরুরি। গতকাল রবিবার চট্টগ্রাম গণ-অধিকার ফোরামের সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। তারা আরো বলেন, সাধারণ মানুষ আজ পেঁয়াজসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়ে বিপদকাল অতিক্রম করছে। এটি জনগণের জন্য বড়ই দূর্ভাগ্যের বিষয়। জনগণকে নিয়ে ছিনিমিনি খেলার অধিকার কারো নেই। এদেশের সাধারণ জনগণ নিরাপদে বসবাস করুক ইহা সাংবিধানিক অধিকার। আজ সেই অধিকার থেকে ১৬ কোটি মানুষকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। ৩০ টাকার পেঁয়াজ ২৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মনে হচ্ছে দেখার কেউ নেই। দেশটাকে কালোবাজারী ও সিন্ডিকেটের কাছে বিক্রি করে দেয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন, সরকার যদি একজন কালোবাজারীকে গ্রেফতার করতো তাহলে বুঝতাম সরকার জনগণের সাথে আছেন।
চকবাজারস্থ কার্যালয় চত্বরে ফোরামের মহানগর সভাপতি প্রবীন রাজনীতিবিদ আবু মোহাম্মদ হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ফোরামের যুগ্ম সম্পাদক এএইচ সিদ্দিকী সেলিমের পরিচালনায় প্রতিবাদ ও বিনামূল্যে অসহায়, বস্তিবাসী ও গরীব মানুষের নিকট পেঁয়াজ বিতরণ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন গণ-অধিকার ফোরামের চেয়ারম্যান প্রবীন রাজনীতিবিদ মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন। প্রধান বক্তা ছিলেন ফোরামের মহাসচিব রাজনীতিবিদ এম.এ হাশেম রাজু। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, গণ-অধিকার ফোরামের ভাইস-চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান চৌধুরী, মোহাম্মদ নুরুল হাকিম লোকমান, মোহাম্মদ খোরশেদ আলম চৌধুরী, অধ্যাপিকা রাজিয়া সুলতানা খান, যুগ্ম মহাসচিব কাউন্সিলর দোস্ত মোহাম্মদ, মোহাম্মদ ইসমাইল, মোহাম্মদ সোলায়মান বাদশা, মোহাম্মদ ইউসুফ, আলহাজ্ব নুর মোহাম্মদ, মোহাম্মদ নুরুন্নবী, সালাউদ্দিন শাহেদ, একেএম আবুল কাশেম, মোহাম্মদ আকতার হোসেন প্রমুখ।

x