পুলিনবিহারী সেন : খ্যাতিমান রবীন্দ্রবিশারদ

সোমবার , ১৪ অক্টোবর, ২০১৯ at ৩:২৯ পূর্বাহ্ণ
20

পুলিনবিহারী সেন রবীন্দ্র গবেষক হিসেবে খ্যাতিমান। ছাত্রজীবন থেকেই তিনি ছিলেন রবীন্দ্রভক্ত এবং ছাত্রাবস্থায় রবীন্দ্র্রনাথের ভাষণ অনুলিখনে তিনি ছিলেন বিশেষভাবে দক্ষ। জীবনব্যাপী সংগ্রহের প্রচুর দুষ্প্রাপ্য বই, পাণ্ডুলিপি এবং শিল্পসামগ্রী তিনি দান করেছেন রবীন্দ্রভবনে। আজ তাঁর ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী।
পুলিনবিহারী সেনের জন্ম ১৯০৮ সালের ১১ আগস্ট ময়মনসিংহে। শান্তিনিকেতন থেকে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা গ্রহণ শেষে স্কটিশ চার্চ কলেজ থেকে গ্র্যাজুয়েশন এবং কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম. এ ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। ‘প্রবাসী’ পত্রিকায় যোগ দিয়ে কর্মজীবন শুরু করলেও পরবর্তী সময়ে বিশ্বভারতীর গ্রন্থন বিভাগে নিযুক্ত হন। রবীন্দ্র-গ্রন্থপঞ্জী সম্পাদনা করে তিনি বিশেষ কৃতিত্ব অর্জন করেন। রবীন্দ্রনাথের চিঠিপত্র সংকলন ও সম্পাদনাও করেছেন তিনি, দিয়েছেন রবীন্দ্র্রনাথের বহু গ্রন্থের গ্রন্থপরিচয়। ১৯৫৭ সাল থেকে ১৯৬০ সাল পর্যন্ত পুলিনবিহারী বিশ্বভারতীর গ্রন্থন বিভাগের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৬৭ সালে যোগ দেন রবীন্দ্র চর্চা প্রকল্পের অধ্যক্ষ হিসেবে। শ্রেষ্ঠ স্বীকৃতি ১৯৬১ সালে রবীন্দ্র শতবর্ষে রবীন্দ্র পুরস্কার লাভ। এছাড়া সরোজিনী বসু স্বর্ণপদক সহ বেশ কিছু পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন পুলিনবিহারী সেন। তাঁর সম্পাদিত বিখ্যাত গ্রন্থগুলোর মধ্যে ‘রবীন্দ্রায়ণ’ [১ম ও ২য় খণ্ড], জগদীশচন্দ্র বসুর ‘অব্যক্ত’, প্রমথ চৌধুরীর ‘সনেট পঞ্চাশৎ ও অন্যান্য কবিতা’ প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। বেশ কিছুকাল তিনি বিশ্বভারতী পত্রিকা সম্পাদনা করেছেন। ১৯৮৪ সালের ১৪ অক্টোবর পুলিনবিহারী সেন প্রয়াত হন।

x