পঞ্চকবির জন্য শ্রদ্ধাঞ্জলি

রবিবার , ২৬ নভেম্বর, ২০১৭ at ৫:৩৮ পূর্বাহ্ণ
103

মোরা পত্র লেখক সমাজের (মোপলেস) উদ্যোগে গত ২৪ নভেম্বর কদম মোবারক এম.ওয়াই উচ্চ বালকবালিকা বিদ্যালয়ে পঞ্চকবি (রবীন্দ্রনজরুলমাইকেল মধুসূদনজীবনানন্দসুকান্ত)-কে নিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অ্যাডভোকেট মোস্তফা আনোয়ারুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান। উদ্বোধক ছিলেন সাতকানিয়া পৌরসভার মেয়র কবি মোহাম্মদ জোবায়ের। প্রধান আলোচক ছিলেন মহানগর যুবলীগ নেতা সুমন দেবনাথ। বিশেষ আলোচক ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা দীপংকর চৌধুরী কাজল, বঙ্গবন্ধু সাহিত্য একাডেমির সভাপতি মো: জসিম উদ্দিন চৌধুরী, প্রকৌশলী টি.কে সিকদার, লায়ন যাদব চন্দ্র শীল।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন, মোপলেস সভাপতি সজল দাশ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা রাখাল চন্দ্র ঘোষ, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব সুনীল কৃষ্ণ দে, অধ্যক্ষ রতন দাশগুপ্ত, কবি আসিফ ইকবাল, নারায়ণ চন্দ্র দাশ, সংস্কৃতিকর্মী দিলীপ সেনগুপ্ত, পত্র লেখক মো: বেলাল হোসেন চৌধুরী, সংগঠক স.ম জিয়াউর রহমান, দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা উজ্জ্বল ধর। এতে প্রধান অতিথি বলেন, পঞ্চকবিরা বাঙালি জাতির অমূল্য সম্পদ। তাঁরা তাঁদের গান, কবিতা, গল্প, প্রবন্ধ প্রভৃতির মাধ্যমে বাংলা সাহিত্যকে বিশ্ব দরবারে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন। তাঁদের অবদানের কথা ইতিহাসের পাতায় অমর অক্ষয় হয়ে থাকবে। তাঁরা প্রত্যেকেই সাহিত্যাকাশের উজ্জ্বল ধ্রশুবতারা। তাঁদের আলোর শিখা জ্বলবে অনন্তকাল। উদ্বোধক মোহাম্মদ জোবায়ের বলেন, পঞ্চকবিরা বাঙালি জাতির গর্ব ও অহংকার। প্রধান আলোচক বলেন, বাঙালি জাতি পঞ্চকবিদের কাছে চির ঋণী। কারণ তাঁদের লেখা গান ও কবিতা আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রামসহ বিভিন্ন আন্দোলনসংগ্রামে মুক্তিকামী জনতাকে অনুপ্রাণিত করেছে। তাই তাঁদের মৃত্যু নেই, তাঁরা মৃত্যুঞ্জয়ী।

সভার সভাপতি বলেন, তাঁরা তাদের স্বীয় কর্মের জন্য বাঙালির জাতির কাছে স্মরণীয় ও বরণীয় হয়ে থাকবেন। সভার এক প্রস্তাবে বরেণ্য বাউল শিল্পী বারী সিদ্দিকী’র মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে তাঁর শোকাহত পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করা হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সজল দাশ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x