নাগপুরে পৌঁছে গেছে টেস্ট অধিনায়ক মোমিনুল সহ চারজন

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শনিবার , ৯ নভেম্বর, ২০১৯ at ৫:৩৮ পূর্বাহ্ণ
18

ভারতের বিপক্ষে ঐতিহাসিক সফরের শুরুতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ দল। আর সে টি-টোয়েন্টি সিরিজ প্রায় শেষের পথে। মাত্র একটি ম্যাচ বাকি। আগামীকাল রোববার ওই ম্যাচটি শেষ হলেই সমাপ্তি ঘটকে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের। এরপর শুরু হয়ে যাবে টেস্ট সিরিজের প্রস্তুতি। পুরো টেস্ট স্কোয়াডের সদস্যরা একসঙ্গে সেই প্রস্তুতি শুরু করবে। মুশফিকুর রহীম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদসহ কয়েজন খেলোয়াড় আছেন যারা টি-টোয়েন্টির পর টেস্টেও খেলবেন। তাদের আপাতত টেস্ট নিয়ে প্রস্তুতি নেয়ার উপায় নেই। সব ভাবনা রোববারের ম্যাচ ঘিরে। সে ম্যাচটি শেষ করে মাহমুদুল্লাহ-মুশফিকরাও নেমে পড়বেন টেস্ট সিরিজের প্রস্তুতিতে।
তবে নাগপুরে সেই ম্যাচের আগেই দলের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন টেস্ট দলের ৮ সদস্য। এর মধ্যে টেস্ট স্পেশালিস্ট ও দলীয় অধিনায়ক মোমিনুল হক, ইমরুল কায়েস, সাদমান ইসলাম আর সাইফ হাসান গতকাল শুক্রবার বেলা ১২টার ফ্লাইটে নাগপুরের উদ্দেশ্যে রাজধানী ছেড়েছেন। গতকালই তারা নাগপুরে পৌছে গেছেন। বাকি চারজন মেহেদি হাসান মিরাজ, নাইম হাসান, আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী এবং এবাদত হোসেন গেছেন পরের অংশে। তারাও গতকালই পৌছে গেছে ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের ভেন্যু নাগপুরে। আগামী ১৪ নভেম্বর ইন্দোরের বিধর্বা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হবে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টটি। দ্বিতীয় টেস্ট কলকাতার ইডেন গার্ডেনে শুরু ২২ নভেম্বর। আর কলকাতার টেস্ট ম্যাচটি হবে দিবা-রাত্রির। বাংলাদেশ এবং ভারত দু দলের জন্যই এই টেস্ট ম্যাচটি ঐতিহাসিক। কারন দু দলই প্রথমবারের মত দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলবে। এদিকে গতকাল ঢাকা ছাড়ার আগে টেস্ট দলের অধিনায়ক মোমিনুল হক বলেন, ভারতের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে আমাদেরকে কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে। তিনি বলেন আমরা জানি ভারত বেশ শক্তিশালী দল। তাদের বিপক্ষে খেলাটা বেশ কািঠন। তবে আমরা প্রস্তুত নিজেদের সেরাটা দিয়ে টেস্ট সিরিজে ভাল কিছু করতে। তিনি বলেন প্রথমবারের মত বাংলাদেশ দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পেয়ে আমি আনন্দিত এবং গর্বিত। এখন আমার লক্ষ্য টেস্ট সিরিজে ভাল কিছু করা।
এদিকে গতকাল ঢাকা ছাড়ার প্রাক্কালে টেস্ট দলের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সাদমান ইসলাম জানান, নিজেদের মাটিতে ভারত অনেক শক্তিশালী দল। কিন্তু আমরা কোনো বাড়তি চাপ নিয়ে যাচ্ছি না। তাদের বোলারদের নিয়ে চিন্তা করার কিছু নেই। আমরা ভালো ভালো অনেক দলের বিপক্ষেই খেলেছি। নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটাই খেলব। এই সিরিজে তামিমের পাশাপাশি সাকিবকেও পাচ্ছে না বাংলাদেশ। বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারের অনুপস্থিতিতে সফরকারীরা ব্যাকফুটে থাকলেও নিজেদের উপর আস্থা রাখছেন সাদমান। তিনি বলেন সাকিব ভাইয়ের না থাকা দলের জন্য বড় চাপ। কিন্তু আমাদের মিরাজ আছে, তাইজুল আছেন, নাঈম আছে। আশা করছি তারা সবাই ভালো করবেন। এদিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ও বিসিসিআইয়ের নতুন প্রধান সৌরভ গাঙ্গুলি আজ ৯ নভেম্বর কলকাতায় সিএবি অফিসে বৈঠক করবেন।
বৈঠক শুরুর কথা ভারতীয় সময় দুপুর দুইটায়। এটা সৌজন্য সাক্ষাত হিসেবে চিহ্নিত হবে। পশ্চিমবঙ্গ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফিসে এই বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন বিসিবি সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজনও। বিসিবির নির্ভরযোগ্য ও দায়িত্বশীল সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। ধারনা করা হচ্ছে যেহেতু কলকাতা টেস্টে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেহেতু সে বিষয়ে পরিকল্পনা সাজাতেই দু পক্ষের বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
কারন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নতুন সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী চাইছেন কলকাতার দুই দলের মধ্যকার প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্ট ম্যাচটিকে স্মরণীয় করে রাখতে। ভারতের বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজের জন্য বাংলাদেশ টেস্ট স্কোয়াড ঃ সাদমান ইসলাম, ইমরুল কায়েস, সাইফ হাসান, মুমিনল হক সৌরভ (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মোহাম্মদ মিঠুন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাঈম হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান, আল-আমিন হোসেন, আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী এবং এবাদত হোসেন।

x