নতুন সড়ক আইন – আশাবাদ

শাকিল মনজুর

রবিবার , ৩ নভেম্বর, ২০১৯ at ৬:০৯ পূর্বাহ্ণ
19

লেগুনা, টেম্পো : লাইসেন্স পাওয়ার বয়সে পৌঁছানোর আগেই যারা এগুলি চালায় সেগুলি বন্ধ হলে বোঝা যাবে আইন কার্যকর হচ্ছে। বাস, মিনিবাস : হেডলাইট নাই, ব্যাকলাইট নাই, ব্রেকলাইট নেই, বাম্পার নেই, জানালার গ্লাস নাই অর্থাৎ ফিটনেস বিহীন বাসগুলি রাস্তায় না দেখলে বুঝবো নতুন আইন কার্যকর হচ্ছে। ভুয়া লাইসেন্স : ভুয়া লাইসেন্স কি সাধারণ মানুষ বানাতে পারে নাকি মুদি দোকানে পাওয়া যায়! কোনো একটি বিশেষ কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা ছাড়া কি কেউ ভুয়া লাইসেন্স পেতে পারে? ভুয়া লাইসেন্সের জন্য ১-৫ লাখ টাকা জরিমানা, ২ বছর পর্যন্ত জেল। এটা একটু বেশী শাস্তি হয়ে গেলো কি! অন্যদিকে যারা এইসব ভুয়া লাইসেন্স দিবে তাদের ক্ষেত্রেও একই আইনে শাস্তির বিধান থাকা উচিৎ। আছে কি? কার্যকর করার ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা : এক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা বা প্রতিবন্ধকতা বহুমুখী। ট্রাফিক বিভাগের সক্ষমতা একটি। এটি যদি আছে ধরে নেই তা হলে আগেই তারা কেন তা এনফোর্স করতে পারছিলেন না। আইন, আইনের বিধান মোতাবেক শাস্তি, জরিমানা তো আগেও ছিল! ট্রাফিক বিভাগে জনবলের অভাব এর কথা আগেও উঠেছে এখন আরও বেশী উঠবে। আইন কার্যকর করার জন্য নতুন জনবল নিয়োগ দেয়া হচ্ছে কি? দ্বিতীয়ত নানান ধরনের প্রভাব অন্য সব সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় ক্ষেত্রের মত এখানেও ক্রিয়াশীল থাকবে। যা আগেও ছিল। হঠাৎ করে তা কি চলে যাবে? মনে হয় না। খধংঃ নঁঃ হড়ঃ ষবধংঃ সংশ্লিষ্ট বিভাগ তথা এনফোর্সিং কর্তৃপক্ষের দূর্বলতা বা দুর্নীতি প্রবণতা ও সড়ক আইনের মত অন্য যেকোনো আইনের সুষ্ঠু বাস্তবায়ন কে বাস্তব হতে দেয়না। এটাই বাস্তবতা। এই ক্ষেত্রে নতুন আইন কি কিছু বিধিবিধান রেখেছে? থাকলে তা নিশ্চয়ই ভালো হবে আশাকরা যায়।

x