দিয়াজ হত্যা মামলায় রিমান্ড শেষে কারাগারে চবির শিক্ষক আনোয়ার

আজাদী প্রতিবেদন

সোমবার , ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৭ at ৩:৪৮ পূর্বাহ্ণ
125

 

 

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরী হত্যা মামলায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নেয়া দুইদিনের রিমান্ড শেষে কারাগরে পাঠানো হয়েছে। গতকাল রোববার তাকে মুখ্য বিচারিক হাকিম মুন্সি মোহাম্মদ মশিয়ার রহমানের আদালতে তাকে উপস্থাপন করা হলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এরপর তাকে কারাগারে ফিরিয়ে নেয়া হয়েছে। আনোয়ার হোসেন বিশ্ববিদ্যালয়টির সমাজতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষক। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের জেষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম শিবলু কুমার দে তাকে দুইদিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দিয়েছিলেন।

জেলা পুলিশের পরিদর্শক (প্রসিকিউশন) স্বপন কুমার মজুমদার জানিয়েছেন, দিয়াজ হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডি চট্টগ্রাম অঞ্চলের সহকারী পুলিশ সুপার জসীম উদ্দিন পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদন করেছিলেন। শুনানি শেষে আদালত দুইদিন মঞ্জুর করেছিলেন। গতকাল রোববার রিমান্ড শেষে তাকে আদালতে আনা হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

জানা গেছে, ২০১৬ সালের ২০ নভেম্বর রাতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই নম্বর গেট এলাকায় ভাড়া বাসায় নিজ কক্ষ থেকে দিয়াজের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি দিয়াজ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহসম্পাদক ছিলেন। ঘটনার পর ২৩ নভেম্বর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকদের দেওয়া প্রথম ময়না তদন্ত প্রতিবেদনে ঘটনাটিকে ‘আত্মহত্যা’ উল্লেখ করা হয়। এর ভিত্তিতে হাটহাজারী থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করে পুলিশ। ২৪ নভেম্বর দিয়াজের মা জাহেদা আমিন চৌধুরী বাদী হয়ে আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার অন্যতম আসামি সে সময় সহকারী প্রক্টরের দায়িত্বে থাকা সমাজতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন। ওই মামলায় উচ্চ আদালত থেকে নেওয়া জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর গত ১৮ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালতে আত্মসমর্পণ করে ফের জামিন চান আনোয়ার। আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আদালতের নির্দেশে মামলাটি বর্তমানে তদন্ত করছে সিআইডি। আদালতে তদন্তকারী কর্মকর্তার আবেদনের ভিত্তিতে দিয়াজের কবর থেকে মরদেহ তুলে দ্বিতীয় দফা ময়নাতদন্ত করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের চিকিৎসকরা। চলতি বছরের গত ৩০ জুলাই দেওয়া দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দিয়াজের মৃত্যু হত্যামূলক।

x