ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে নেতৃত্ব দেবে নতুন প্রজন্ম

সিটিবির মেধাবৃত্তি পরীক্ষা পরিদর্শনে আবু সুফিয়ান

শনিবার , ২৭ অক্টোবর, ২০১৮ at ৯:১২ পূর্বাহ্ণ
52

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও রূপালী ব্যাংকের পরিচালক আবু সুফিয়ান বলেছেন, নতুন প্রজন্মকে দক্ষ ও সুশিক্ষিত নাগরিক হিসাবে গড়ে তুলতে মেধাবৃত্তি পরীক্ষার গুরুত্ব রয়েছে। এই ধরণের প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় তারা নিজেদের ঋদ্ধ করে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে নেতৃত্ব দিতে পারবে। গতকাল শুক্রবার সকালে নগরীর এনায়েত বাজার মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে দি চিটাগং ট্রাস্ট-বাংলাদেশ (সিটিবি) পরিচালিত ২য়, ৩য়, ৪র্থ ও ৫ম শ্রেণীর মেধাবৃত্তি পরীক্ষা পরিদর্শনকালে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। এই পরীক্ষায় নগরীর বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় ১১শ’ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।
চসিক প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী বলেছেন, আজকের মেধাবী ছাত্ররাই ভবিষ্যতে দেশ পরিচালনায় নেতৃত্ব দেবে। একেক জন শিক্ষার্থী একেক জায়গায় মেধার হাতিয়ার হিসেবে কাজ করবে।
চট্টগ্রাম বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন বলেছেন, শিশুদের মেধা বিকাশে সিটিবি যে মেধাবৃত্তি পরীক্ষার আয়োজন করেছে তা প্রশংসার দাবি রাখে। এ ধরণের আয়োজন শিক্ষার্থীদের জ্ঞানানুশীলনে বিশেষ ভূমিকা রাখছে। সিটিবি কর্তৃপক্ষের এই আয়োজনে ভবিষ্যতে আমাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা থাকবে।
পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের উপ-পরিচালক (হিসাব ও নিরীক্ষা) প্রফেসর নারায়ণ চন্দ্র নাথ, এনায়েত বাজার মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ তহুরুন সবুর ডালিয়া, ট্রাস্টের প্রধান পৃষ্ঠপোষক তিনকড়ি চক্রবর্তী, চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের সভাপতি এড. চন্দন তালুকদার, জন্মাষ্টমী উদ্‌যাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিমল কান্তি দে, উপসচিব (অব.) দিলীপ কান্তি চৌধুরী, ট্রাস্টের পৃষ্ঠপোষক স্বপন দাশ, অধ্যক্ষ ছন্দা চক্রবর্তী, অধ্যাপক অর্পণ কান্তি ব্যানার্জী, সাংবাদিক নিপুল কুমার দে, এস প্রকাশ পাল, বৈদিক পরিষদ কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শিক্ষক মানিক বৈদ্য, দক্ষিণ জেলার সভাপতি ডা. বাবুল চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক সুজন মজুমদার, উত্তর জেলার সভাপতি এড. নিরঞ্জন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক জিকু দত্ত প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

শারদাঞ্জলি ফোরাম চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি অজিত কুমার শীল, ট্রাস্টের চেয়ারম্যান অধ্যাপক স্বদেশ চক্রবর্তী, মহাসচিব অরুন কান্তি মলিক, পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক মৃণাল কান্তি বণিক, সদস্য সচিব মাভৈঃ তারানাথ চক্রবর্তী, ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মিলন কান্তি রুদ্র, ডা. নারায়ণ মজুমদার, প্রফেসর প্রিয়তোষ চৌধুরী, অধ্যাপক জনার্দ্দন বণিক, প্রিতম চৌধুরী, উত্তম চক্রবর্তী, নারায়ণ কান্তি দাশ, জগদীশ মল্লিক, শফিকুল ইসলাম, রানা মহাজন, রতন ঘোষ, রতন রায়, রনজিত নাথ, তাপস তালুকদার, তপন ধর, সমীপ দে, শ্যামল দেব, সৈকত ভট্টাচার্য্য, দেবব্রত শীল বাসু, কমল দাশ শিমুল, প্রদীপ দাশ পরাগ, প্রধান শিক্ষক সুভাষ দাশ, মোর্শেদ আলম, ইঞ্জিঃ সিনসন ভৌমিক, অঞ্জন দাশ, অধ্যাপক জয়া দত্ত, রাজশ্রী মজুমদার, রুমকী সেনগুপ্তা, চম্পা নন্দী, ডা. আঁখি ধর, পম্পী দাশ, রফি দাশ, নাহিদা পারভীন, মৌসুমী চৌধুরী, নুরুন্নেছা আহমদ মুক্তা, সুমী ঘোষ, সুমি দে, অধ্যক্ষ অনুপ চক্রবর্তী, গুরুসদয় বিশ্বাস, ডেইজী চক্রবর্তী, পারভীন আক্তার, রাজীব দাশ, কনক রাজ চৌধুরী, লক্ষ্মীকর চৌধুরী, সজল দাশ, এড. যদুনাথ চৌধুরী, অনুপম মলিক, আশীষ দাশ, যুবরাজ মলিক প্রমুখ।

x