টাইগারদের ক্যাম্প শুরু হচ্ছে ১৮ আগস্ট

ক্রীড়া প্রতিবেদক

রবিবার , ১১ আগস্ট, ২০১৯ at ৯:০২ পূর্বাহ্ণ
29

বিশ্ব্‌কাপের পর শ্রীলংকা সফর। এরপর লম্বা ছুটি ক্রিকেটারদের। টানা ক্রিকেটের ধকল কাটিয়ে উঠতে সে বিশ্রাম। আগামীকাল দেশে উদযাপিত হবে পবিত্র ঈদুল আজহা। আর সে জন্য সব ক্রিকেটাররই রয়েছে পরিবার পরিজনের সাথে। সাকিব আল হাসান রয়েছেন পবিত্র হজ পালন করতে মক্কা নগরীতে। আর মাশরাফি রয়েছেন তার নির্বাচনী এলাকা নড়াইলে। তবে ১২ আগস্ট ঈদুল আজহার পর আবার সবাই এক হবেন ১৮ আগস্ট থেকে। কারণ সেদিন থেকেই শুরু হবে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট এবং আফগানিস্তান এবং জিম্বাবুয়েকে নিয়ে আয়োজিত ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য কন্ডিশনিং ক্যাম্প। এই সিরিজের এখনো ২০ দিনের মত বাকি। এখন প্রশ্ন দেখা দিয়েছে সিরিজের আগে কি নতুন হেড কোচ পাচ্ছে টাইগার ক্রিকেটাররা। যদিও বিসিবির কর্তারা বলছেন কোচ নিয়োগ হয়ে যাবে তার আগেই।
আগামী ৫ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্ট ম্যাচটি খেলতে নামবে বাংলাদেশ দল। তবে তার আগেই নতুন কোচ নিয়োগ হয়ে যাবে বলে জানা গেছে বিসিবি সুত্রে। শুধু নতুন কোচ চূড়ান্ত করাই না, তার অধীনেই বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা অনুশীলন করবেন সে সম্ভাবনাও নাকি খুব উজ্জ্বল। বিসিবির এক শীর্ষ কর্তা জানান আমরা খুব চেষ্টা করছি যাতে আগস্টের তৃতীয় সপ্তাহের ভেতরে নতুন কোচ এসে দায়িত্ব নিতে পারেন। তাই আশা করা যায়, ২০-২২ আগস্টের মধ্যেই কোচ নিয়োগ চূড়ান্ত হয়ে যাবে।
এদিকে আগামী ১৮ আগস্ট থেকে টাইগারদের কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরু হবে। যা অনিবার্যভাবেই চলবে এক সপ্তাহ। তাই ২০ থেকে ২২ আগস্টের মধ্যে নতুন হেড কোচ নিয়োগ পেয়ে আরও ৪/৫ দিন পরে আসলেও সমস্যা নেই। কন্ডিশনিং ক্যাম্পে তো আর হেড কোচের কোন কাজ নেই। তার পুরোটাই ট্রেনার মারিও ভিল্লাভারায়নের তত্ত্বাবধানেই হবে। কাজেই নতুন কোচ যদি প্রথম সপ্তাহ মানে কন্ডিশনিং ক্যাম্প শেষে আসেন তবু আফগানিস্তানের সাথে টেস্ট শুরুর আগে এক সপ্তাহর বেশি ট্রেনিং করানোর সময় পাবেন। বিশ্বকাপে গত ৫ জুলাই পাকিস্তানের বিপক্ষে লর্ডসে শেষ ম্যাচ খেলার পর দেশে ফিরে ১০ দিনও পুরো বিশ্রাম মেলেনি। তারপর পরই শ্রীলঙ্কা সফরের প্রস্তুতি শুরু। এরপর শ্রীলঙ্কায় তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলে দেশে ফিরে ঈদের ছুটিতে বেশির ভাগই নিজ নিজ গন্তব্যে চলে গেছেন। কিন্তু তারপরও ঈদের ছুটিতে সেভাবে বেশি দিন বাড়িতে আরাম করার সুযোগ থাকবে না ক্রিকেটারদের। কারণ ঈদ উল আজহার ঠিক চার দিন পর ১৮ আগস্ট শুরু হয়ে যাচ্ছে আফগানিস্তানের সাথে এক টেস্ট আর জিম্বাবুয়ে-আফগানিস্তানকে নিয়ে তিন জাতি টি-টোয়েন্টি আসরের প্রস্তুতি।
প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানান, আমরা দল চূড়ান্ত করে ফেলেছি আগেই। কিন্তু ঈদের ছুটিতে দল ঘোষণার সম্ভাবনা নেই। তাই ঈদের ছুটি শেষে ১৬ আগস্ট নাগাদ দল প্রকাশের সম্ভাবনা বেশি। ধারনা করা হচ্ছে ছয় মাস আগে যারা নিউজিল্যান্ডে টেস্ট দলে ছিলেন, তাদের প্রায় সবাই থাকবেন। আফগানিস্তানের সাথে একমাত্র টেস্ট আর তিন জাতি টি-টোয়েন্টি সিরিজ সামনে রেখে ৩৬ জনকে বাছাই করা হয়েছে।
টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি দলে না থেকেও ঐ তালিকায় নাম আছে মাশরাফিরও। এছাড়া এইচপিএ দলের সাত আট জন তরুণের কথাও শোনা যাচ্ছে । সেই দলে নাজমুল হোসেন শান্ত, সাইফ হাসান, নাইম শেখ, ইয়াসির রাব্বি, আফিফ হাসান ধ্রুব, ইয়াসির আরাফাত মিশু আর শরিফুল ইসলামের মত সম্ভাবনাময় তরুণদের থাকার সম্ভাবনা খুব বেশি বলে জানা গেছে।

x