জাহেদ খান (মানুষের সাথে কথা বলা)

সোমবার , ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ at ৮:৪২ পূর্বাহ্ণ
60

 : মানুষ সবচে বেশি কষ্ট পায় কারো মুখের কথায়মুখ থেকে যে শব্দটা বের হয় তা ফিরিয়ে নেয়া যায়নামুখের তীব্র বিষ বানে যখন কেউ ক্ষতবিক্ষত হয়সেটা একদম অন্তরের কেন্দ্রবিন্দুতে গিয়ে সেই বান বিঁধেকাচ ভাঙ্গা আর্তনাদের মত প্রতিশব্দ হয়প্রচণ্ড যন্ত্রণায় অন্তরের অন্তস্থল হাহাকার করে উঠেমানুষের শারীরিক কষ্ট স্বচক্ষে দেখা যায়অনুভব করা যায়কিন্তু হৃদয় ভাঙ্গার এই প্রতিশব্দ, প্রচণ্ড যন্ত্রণায় কাঁচের মত হৃদয় বিদীর্ণ হবার আর্তনাদ শোনা যায়নাকেউ বুঝতে পারেনামুখের তীব্র বিষবানে হৃদয়ে রক্ত ঝরতে থাকেসেই রক্ত সহজে জমাট বাঁধেনাএকমাত্র সেই মানুষটাই এতে চরম পরিতৃপ্তি পায়, যে মুখের কথায় কাউকে আঘাত করে, অপমান করে, আক্রমণ করেকেউ কাউকে কথার বিষবাণে জর্জরিত করলে সেই মানুষটার হৃদয় ভাঙ্গার, তীব্র আর্তনাদের প্রতিটা দীর্ঘশ্বাস অভিশাপের বহ্নিশিখা হয়ে তোমাকে তাড়া করে ফিরবেকারো কারো মুখ খুব হালকা, ঠোঁট কাটা স্বভাবেরকেউ এই স্বভাবের কারণেই কাউকে ইচ্ছাকৃত কষ্ট দিতে চায়অপমান করতে চায়অনেকে এটাকে নিজের জয় হিসেবে দেখেগর্ব অনুভব করে। আমাকে যখন কেউ কটু ভাষায় কিছু বলে, আঘাত করে তখন আমি একদম চুপ হয়ে যাইকিছু বলার ভাষা খুঁজে পাইনাকথা বলার আগ্রহ পাইনাখুব নীরবে সরে আসিএকটা ডিস্ট্যান্সে নিজেকে সরিয়ে নিইমানুষের সাথে সাবধানে, বিনম্র ভাবে, শ্রদ্ধার সাথে কথা বলা উচিতএমন কিছু বলা উচিত নয় যাতে কেউ কষ্ট পেয়ে যায়কেননা, একজন মানুষ সুন্দর ব্যবহার দিয়ে কারো মন প্রথম দর্শনেই জয় করে নিতে পারেতেমনি এই মুখের কথায় তৈরী হয় সীমাহীন দূরত্বযেই দূরত্ব হাজার পথ হাঁটলেও ঘুচবেনা।

x