জাহাজশূন্য করা হলো বন্দর

আজাদী প্রতিবেদন

রবিবার , ১০ নভেম্বর, ২০১৯ at ৪:০১ পূর্বাহ্ণ
121

পুরোপুরি জাহাজশূন্য করে দেয়া হয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলার প্রস্তুতি হিসেবে গতকাল বন্দরের সব জাহাজকে গভীর সাগরে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। বন্দরের কন্টেনার হ্যান্ডলিং এবং খোলা পণ্য হ্যান্ডলিংসহ সব ধরনের অপারেশনাল কার্যক্রমও বন্ধ রয়েছে। আবহাওয়ার উন্নতি হওয়ার পরই জাহাজগুলোকে আবার জেটিতে ফিরিয়ে আনা হবে।
ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে সাগর অত্যন্ত উত্তাল হয়ে উঠেছে। আবহাওয়া অধিদফতর থেকে চট্টগ্রাম বন্দরকে ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। আবহাওয়া বিভাগের সতর্কতা জারির পর চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় প্রস্তুতি শুরু করে। বন্দর সচিব মোহাম্মদ ওমর ফারুক দৈনিক আজাদীকে
বলেন, আবহাওয়া বিভাগের সতর্কতাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বন্দর কর্তৃপক্ষ শুক্রবার থেকেই প্রস্তুতি নিতে শুরু করে। সব লাইটারেজ জাহাজ ও ফিশিং জাহাজকে শাহ আমানত সেতুর উজানে নিরাপদ স্থানে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। চট্টগ্রামে নৌবাহিনীর জাহাজগুলোকেও নিরাপদ স্থানে রাখা হয়েছে। কোস্টগার্ডের জাহাজকেও সরিয়ে নেয়া হয়েছে। সবকিছু মিলে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় চট্টগ্রাম বন্দর ও কর্ণফুলী নদী কেন্দ্রীক প্রস্তুতি পুরোপুরি সম্পন্ন করা হয়েছে। বন্দরের মূল্যবান ইক্যুপমেন্টগুলো নিরাপদ স্থানে রাখা হয়েছে। বিভিন্ন ইয়ার্ডে কন্টেনারগুলো গুছিয়ে রাখা হয়েছে।

x