জাফর খান মানুষের মনে বেঁচে থাকবেন

শোক সমাবেশে ফজলে করিম চৌধুরী

রবিবার , ৭ অক্টোবর, ২০১৮ at ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ
68

রেলপথ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী বলেছেন, এ কে জাফর খান অত্যন্ত সজ্জন ব্যক্তি ছিলেন, একজন শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক হিসেবে তিনি সমাদৃত ছিলেন। তাকে হারিয়ে রাউজানবাসী একজন যোগ্য মানুষকে হারালো। জাফর খানের পথ ধরে তরুণ সমাজকে আলোকিত সমাজের জন্য কাজ করতে হবে। জাফর খান তার কর্মের মাধ্যমে আজীবন মানুষের মনে বেঁচে থাকবেন। তিনি গত ৫ অক্টোবর বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের সাবেক কর্মকর্তা, শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক এ কে জাফর খানের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে শোক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
এ কে জাফর খান স্মৃতি সংসদ ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে এ কে সি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শোক সমাবেশ সাবেক সিভিল সার্জন, মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সরফরাজ খান বাবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে স্বাগত বক্তব্য দেন-মরহুমের পুত্র প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব নিয়াজ মোরশেদ নিরু।
এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. হারুনুর রশিদ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মো. মোহসিন চৌধুরী, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব এইচ এম হুমায়ুন কবির ও মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান, উপজেলা চেয়ারম্যান এহসানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, ডা. নূর মোহাম্মদ, উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দিলওয়ারা ইউসুফ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, পৌরসভা প্যানেল মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক বশির উদ্দিন খান, অ্যাডভোকেট দীপক দত্ত, পশ্চিম গুজরা ইউপি চেয়ারম্যান লায়ন শাহাবুদ্দিন আরিফ, পৌরসভার প্যানেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ, ইউপি চেয়ারম্যান সুকুমার বড়ুয়া, ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার সোহেল, মহিলা কাউন্সিলর নাসরিন আকতার, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুস সালাম, সাবেক কাউন্সিলর শামীমুল ইসলাম (শামু), বিনাজুরী নবীণ স্কুল এন্ড কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি মনজুর মোরশেদ, বিনাজুরী নবীণ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ অমর কান্তি দত্ত, আরিফ মোরশেদ।
আওয়ামী লীগ নেতা জামাল উদ্দিনের পরিচালনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্যে দেন প্যানেল চেয়ারম্যান আবদুল মালেক, সাজ্জু মোহাম্মদ নাছের, বশির মিত্র বড়ুয়া, অ্যাডভোকেট পেয়ার হোসেন, ডা. ইকবাল করিম মুরাদ, ডা. আলী হায়দার, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন পিপলু, আবদুল্লাহ আল মাসুদ, আনোয়ার হোসেন, ইউপি সদস্য মো. জামাল, মো. লিটন, রিফাত মাহমুদ, রুপম সরকার প্রমুখ।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. হারুনুর রশিদ বলেন, জাফর খান ছিলেন আমার ঘনিষ্ঠ। আমার বন্ধু জাফর সব সময় মানুষের বিপদে-আপদে থাকতেন। তার মাঝে সব সময় মানুষের কল্যাণ নিহিত ছিল। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মো. মোহসিন চৌধুরী বলেন, জাফর খান একজন সৃষ্টিশীল মনের মানুষ ছিল। স্বল্প সময়ের মধ্যে তিনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধন করেছিল।
উল্লেখ্য, সকালে মরহুম এ, কে জাফর খানের কবরে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বি.এসসি, এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি, বিনাজুরী নবীন স্কুল এন্ড কলেজ, এ কে জাফর খান স্মৃতি সংসদ, বিনাজুরী ইউনিয়ন পরিষদ, পশ্চিম গুজরা ইউনিয়ন পরিষদ, একাউন্টিং প্লাস ও সায়েন্স প্লাস কোচিংসহ, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে মরহুমের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x