চমেক গাইনি বিভাগ স্বয়ংসম্পূর্ণ করতে সহযোগিতার আশ্বাস মেয়রের

রবিবার , ৫ মে, ২০১৯ at ১১:০২ পূর্বাহ্ণ
108

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের গাইনি বিভাগকে একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ বিভাগে পরিণত করা এবং সুস্থ সন্তান প্রসবে এই বিভাগের জন্য প্রয়োজনীয় চিকিৎসা উপকরণ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। গতকাল শনিবার সকালে সানশাইন গ্রামার স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ সাফিয়া গাজী রহমানের গাইনি বিভাগের জন্য যন্ত্রপাতি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন মেয়র। চমেক গাইনি বিভাগ আয়োজিত এ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন গাইনি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাক্তার সাহানারা চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, অধ্যক্ষ সাফিয়া গাজী রহমান, চমেক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহসেন উদ্দিন আহমদ, চমেক মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. সুযম পাল ও কেডিওলজি অপকোলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. সাজ্জাদ মুহাম্মদ ইউসুফ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন ডা. ফরিদা ইয়াসমিন সুমি।
সামাজিক সংগঠন সানশাইন চ্যারিটিজ সাড়ে ৪ লাখ টাকার গাইনোকলজি বিভাগে প্রয়োজনীয় মেশিন এবং যন্ত্রপাতি উপহার দেয় চমেকে। এসব যন্ত্রপাতির মধ্যে রয়েছে ডায়াথামি মেশিন, সাকার মেশিন, নরমাল ডেলিভারি যন্ত্রপাতি সেট, সিজারিয়ান ডেলিভারি যন্ত্রপাতি ও লাইট।
বক্তব্যে সিটি মেয়র বলেন, অস্বচ্ছল মানুষ সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ছুটে আসে। এদেরকে সুচিকিৎসা দেয়া চিকিৎসকদের নৈতিক দায়িত্ব। চিকিৎসকরা যাতে আন্তরিকতা, সুন্দর আচরণের মাধ্যমে আগত রোগীদের যথাযথ সেবা দেয়, সেটাই জাতি চিকিৎসকদের কাছ থেকে কামনা করে। এই ব্যাপারে চিকিৎসকদের সামাজিক দায়বদ্ধতার কথা স্মরণ করিয়ে দেন সিটি মেয়র। তিনি বলেন, সুস্থ সন্তান জন্মদানে ডাক্তারের ভূমিকা অপরিসীম। কিন্তু সেটাই প্রধান নয়। প্রকৃতপক্ষে সুস্থ মা-ই পারেন সুস্থ সবল শিশুর জন্ম নিশ্চিত করতে। এই কারণে গর্ভবতী মায়েদের শরীরের যত্ন নিতে চিকিৎসকদের প্রতি আহবান জানান মেয়র। মেয়র সরকারি প্রতিষ্ঠানে মালামাল ক্রয়নীতির কথা উল্লেখ করে বলেন, সরকারি যেকোনো প্রতিষ্ঠানে যখনতখন মালামাল ক্রয় করা যায় না। ক্রয়ের ক্ষেত্রে ক্রয় নীতিমালা অনুসরণ করা বাধ্যতামূলক। এই নীতিমালা অনেক কঠিন। ঔপনিবেশিক ধ্যান ধারণায় প্রণীত নীতিমালা পরিবর্তন না হওয়া পর্যন্ত জরুরি ভিত্তিতে কোনো মালামাল ক্রয় করা যাবে না। অধ্যক্ষ সাফিয়া গাজী রহমানের উদ্যোগের কথা উল্লেখ করে সিটি মেয়র বলেন, মানবতা ও সামাজিক দায়বদ্ধতা নিয়ে সানশাইন চ্যারিটিজ চমেক গাইনি বিভাগে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি প্রদান করেছে। এ যন্ত্রপাতিগুলো চমেকে সেবা নিতে প্রসূতি মায়েদের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হবে। এর মধ্য দিয়ে গাইনি বিভাগে সেবার মান আরো গতিশীল হবে। মেয়র সমাজের বিত্তবান ব্যক্তিদের এভাবে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। পরে সিটি মেয়র গাইনি বিভাগের যন্ত্রপাতিগুলো বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. সাহানারা চৌধুরীর কাছে হস্তান্তর করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x