চবি এলামনাইর প্রথম মিলনমেলা

দু’দিনব্যাপী আয়োজন আজ থেকে শুরু

আজাদী প্রতিবেদন

বৃহস্পতিবার , ২১ নভেম্বর, ২০১৯ at ৪:৩৩ পূর্বাহ্ণ
26

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশনের প্রথম পুনর্মিলনী ও বিশ্ববিদ্যালয় দিবস-২০১৯ উপলক্ষে দু’দিনব্যাপী অনুষ্ঠান আজ বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে। প্রথমদিনে বিকেল ৩টায় চারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে তা সিআরবিতে গিয়ে শেষ হবে। এরপর সন্ধ্যা ৬টায় শিরীষ তলায় থাকছে বাউল গানের আয়োজন। তবে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের মূল পর্বের আয়োজন থাকছে আগামীকাল শুক্রবার। সকাল ১০টায় অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আক্তার। এসময় চবির সাবেক উপাচার্যদের সম্মাননা প্রদান করা হবে। বিকেলে থাকছে স্মৃতিচারণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে সরকারের বর্তমান ও সাবেক মন্ত্রী, প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং ব্যবসায়ীসহ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা যোগ দেবেন। পুনর্মিলনী উপলক্ষে গতকাল চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।
এতে সভাপতিত্ব করেন এলামনাই এসোসিয়েশনের সভাপতি ও সাবেক মুখ্য সচিব মোহাম্মদ আবদুল করিম। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চট্টগ্রাম চেম্বার প্রেসিডেন্ট ও এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম। প্রায় দশ হাজার প্রাক্তন শিক্ষার্থী পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের জন্য নিবন্ধন করেছেন জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে মাহাবুবুল আলম বলেন, যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ব্যাচ থেকে শুরু করে ৪৯তম ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা রয়েছেন। তিনি বলেন, এলামনাইদের সহযোগিতায় পাঁচ লাখ টাকার একটি তহবিল গঠন করা হয়েছে। চবির মেধাবী ও অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদানে এ তহবিল থেকে সহায়তা দেওয়া হবে। বৃত্তি কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ইতোমধ্যে গ্র্যাজুয়েটদের নিবন্ধন হতে প্রাপ্ত অর্থ দিয়ে এলামনাই এসোসিয়েশনের স্থায়ী তহবিল গঠন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এলামনাই এসোসিয়েশনের শূন্যতা দীর্ঘদিনের। এই শূন্যতা পূরণে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সুবর্ণজয়ন্তীর প্রাক্কালে এলামনাই এসোসিয়েশনের যাত্রা শুরু হয়। পশ্চিমা বিশ্বে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রিক সংগঠন থাকলেও আমাদের দেশে তেমনটি নেই। তাই চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি সমুন্নত রাখা, শিক্ষার পরিবেশ উন্নয়নে সহযোগিতা, বিশ্ববিদ্যায়ের শিক্ষা ও গবেষণা উন্নয়নের জন্য কর্মসূচি গ্রহণ, বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত মেধাবী ও অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষাবৃত্তির ব্যবস্থা, নিয়মিত এলামনাই বুলেটিন, সাময়িকী, সেমিনার, সিম্পোজিয়ামসহ বিভিন্ন লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে গঠিত এই এসোসিয়েশনের প্রথম পুনর্মিলনী ও বিশ্ববিদ্যালয় দিবস আয়োজন করা হয়েছে। পুনর্মিলনী উৎসব সফল করতে এসোসিয়েশনের রেজিস্ট্রেশনকৃত সকল সদস্যকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার অনুরোধ জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পুনর্মিলনী উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক আলাউদ্দিন আহম্মদ চৌধুরী নাসিম ও সদস্য সচিব মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন। এলমানাই এসোসিয়েশন নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চাকসুর সাবেক ভিপি ও সাবেক এমপি মাজহারুল হক শাহ চৌধুরী, মোহাম্মদ আবুল কদর, এ জে এম জাহাঙ্গীর, অধ্যাপক ড. ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, চবি অধ্যাপক এম আবু নোমান, অনুপ খাস্তগীর, আমেরিকা প্রবাসী মোহাম্মদ এমরান, কামরুল হাসান হারুন, সৈয়দ ছগীর আহম্মদ, সাইফুদ্দিন আহমেদ সাকি, দাউদ আবদুল্লাহ লিটন, মোহাম্মদ শাহজাহান চৌধুরী, জি এম শাহাবুদ্দীন খান, কাজী আবুল মনসুর, নাজিমুদ্দীন শ্যামল, ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, ফখরুল ইসলাম, হানিফা নাজীব হেনা, জিন্নাত পারভীন শাকী, এডভোকেট মোহাম্মদ শামীম, ফেরদৌস বশর, জহিরুল আলম, সামসুর রহমান প্রমুখ।

x