চবির কয়েকজন শিক্ষার্থীকে প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ

কটেজে বিদ্যুৎ পানি চাওয়ার জের

চবি প্রতিনিধি

বুধবার , ২৩ অক্টোবর, ২০১৯ at ৪:৫৪ পূর্বাহ্ণ
29

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েকজন শিক্ষার্থীকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিষ্ঠানটির চতুর্থ শ্রেণির এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত শরীফুল ইসলাম ‘মহসিন’ নামক একটি কটেজের মালিক বলে জানান শিক্ষার্থীরা। মূলত তার কটেজে থাকা কয়েকজন শিক্ষার্থীকে সেখান থেকে বের হয়ে যেতে এমন হুমকি প্রদান করেন শরীফুল। গত সোমবার গভীর রাতে মুঠোফোনে এই হুমকি প্রদান করা হয় বলে জানায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা। এছাড়া তিনি শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেট আটকে রাখার হুমকি দেন বলে জানা যায়।
শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, সমপ্রতি কটেজের পানি ও বিদ্যুৎ সমস্যা দেখা দিলে তারা তা নিরসনে কটেজ মালিক শরীফুলকে অনুরোধ জানান। কিন্তু তিনি তা না করে উল্টো শিক্ষার্থীদের ভালো না লাগলে কটেজ ছেড়ে চলে যেতে বলেন। এসব বিষয়ে প্রতিবাদ করলে তিনি শিক্ষার্থীদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন।
এ বিষয়ে মুঠোফোনে হুমকির শিকার ইসলামের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী আরজু মিয়া বলেন, সোমবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে আমার মুঠোফোনে একটি নম্বর (০১৭৩৫৭৯৭৩২৮) থেকে ‘কল’ দিয়ে অশালীন ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন অজ্ঞাত একজন। এসময় ওই ব্যক্তির পরিচয় জানতে চাইলে তিনি কটেজ না ছাড়লে হাত-পা ভেঙে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেন। শুধু আমাকে নয় গতকাল রাতে আরো কয়েকজনকে ওই নাম্বার থেকে হুমকি দেয়া হয়েছে। এদিকে একই কটেজের বাসিন্দা গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী মুশফিক রাহাত বলেন, আগামী মাসে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় সবকটি বিভাগে পরীক্ষা শুরু হবে। এই অবস্থায় কটেজ ছেড়ে দিলে ভোগান্তিতে পড়তে হবে আমাদের। কিন্তু কটেজ মালিক দ্রুত ছেড়ে দিতে আমাদের হুমকি দিচ্ছেন। তা না হলে তিনি আমাদের সার্টিফিকেট পেতেও সমস্যা করবেন বলে হুমকি দেন। তাই আমরা নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত। তবে হুমকির বিষয়টি অস্বীকার করে অভিযুক্ত মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম বলেন, আমার কটেজে অনেক সমস্যা আছে। তাছাড়া সব সমস্যা সমাধান করতে যেই টাকার প্রয়োজন, সেটা আমার কাছে এখন নেই। তাই আমি তাদেরকে চলে যেতে বলেছি। যেহেতু তারা টাকা দিয়ে থাকছে, তাই তাদের ওপর অবিচার হচ্ছে। কিন্তু তাদেরকে চলে যেতে বলায় তারা আমার সাথে অশোভন আচরণ করে।

x