গগনের ছড়াটি সংস্কার করা অতীব জরুরি

শুক্রবার , ৮ নভেম্বর, ২০১৯ at ৮:১৭ পূর্বাহ্ণ
12

চট্টগ্রাম জেলার পাহাড়তলী থানার অন্তর্গত ১১ নং ওয়ার্ড সিটি কর্পোরেশন অন্তর্ভুক্ত দক্ষিণ কাট্টলী গ্রাম। এই গ্রামে অতীতে গগন ছড়াটি বেশ বড় ছিল এবং পরিষ্কার করা যেত। বর্তমানে গগন ছড়াটি চারিদিকে সরু হওয়াতে পরিষ্কার করা প্রায়ই অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে। এজন্যে বৃষ্টি পড়লে জলাবদ্ধতার সকল পানি জনগণের বাড়ি ঘরে ঢুকে যায় এবং জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করে রাখে। ধেয়ে পাড়া থেকে ধেয়ে আসা প্রাকৃতিক খাল আজ সরু হয়ে গেছে। গগনের ছড়া দিয়ে যখন পানি চলাচল করত তখন নয়া পুকুর নামে একটি পুকুর ছিল। যা ভরাট হয়ে ২২ প্লটে পরিণত হয়েছে। আর ২২ প্লটের মালিকরা সরু একটি নালা রেখেছে। যা পানি চলাচলের অযোগ্য অবস্থা হয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশে বড় বড় বিল্ডিং হচ্ছে, কে কতটুকু নালা রেখেছে এবং নাকি নালার জায়গা দখল করে রেখেছে তা সিডিএ’র বড় বড় কর্মকর্তাদের খতিয়ে দেখতে হবে। এজন্যে বাংলাদেশ উন্নয়ন করা সত্ত্বেও তা বার বার পিছিয়ে আসতে হচ্ছে। বাংলাদেশের মাটি মীর জাফরের মাটি, নবাব সিরাজউদ্দোলা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ওদের মতো নেতাকে বাঙালিরা মেরে ফেলেছে। তাহলে কী করে উন্নয়নের হাল ধরবে? পরিশেষে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর আবেদন জানাব গগনের ছড়াটি সংস্কার হউক এবং জলাবদ্ধতা মুক্ত হউক।
রাজীব হোড় (রাজু), যুধিষ্ঠির মহাজন বাড়ি, দক্ষিণ কাট্টলি, চট্টগ্রাম-৪২১৯

x