কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টায় হাসপাতালে মারা গেলেন স্ত্রী

বাঁচাতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ স্বামী

আজাদী অনলাইন

শুক্রবার , ৩০ আগস্ট, ২০১৯ at ৯:১৭ অপরাহ্ণ
308

কেরোসিন ঢেলে গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয়া গৃহবধূ শারমিন আকতার (২৬) মারা গেছেন।

আজ শুক্রবার (৩০ আগস্ট) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদশর্ক (এএসআই) আলাউদ্দিন তালুকদার জানান, শুক্রবার ভোরে বোয়ালখালী উপজেলার পূর্ব চরণদ্বীপ এলাকায় পারিবারিক কলহের একপর্যায়ে শারমিন আকতার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। বিষয়টি টের পেয়ে তাকে বাঁচাতে ছুটে যান স্বামী। এ সময় দু’জনই অগ্নিদগ্ধ হন। বাংলানিউজ

তিনি বলেন, ‘পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে আনেন। বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে তাকে ভর্তি করা হয়। সন্ধ্যা ৭টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শারমিনের মৃত্যু হয়।’

স্ত্রী শারমিন আকতারের শরীরের ৯০ শতাংশ এবং স্বামী সাইফুল ইসলামের (২৮) ১৮ শতাংশ পুড়ে যায়।

তাদের দু’জনকেই ভর্তি করা হয় চমেক হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে।

এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার আরো জানান, ওমান থেকে সম্প্রতি দেশে ফিরেছিলেন সাইফুল ইসলাম। শারমিন ও সাইফুলের সংসারে ৯ বছর বয়সী একটি মেয়ে রয়েছে।

ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান বোয়ালখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নেয়ামত উল্লাহ।

x