কার হাতে উঠবে আজকের বিপিএলের ট্রফি

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শুক্রবার , ১৭ জানুয়ারি, ২০২০ at ৫:৪১ পূর্বাহ্ণ

দেখতে দেখতে শেষ হয়ে এলো বঙ্গবন্ধু বিপিএলের এবারের আসর। আজ শুক্রবার ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে এবারের বিপিএলের। আর আজকের বহু প্রত্যাশিত সে শিরোপা লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে খুলনা টাইগার্স ও রাজশাহী রয়্যালস। বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত ভিন্ন আঙ্গিকের এবারের বিপিএল আজ শেষ হবে। এরই মধ্যে একে একে ঝরে পড়েছে সব তারা। বাকি আছে কেবল দুটি। যারা কিনা ধ্রুবতারা হয়ে জ্বলছে। আজ সেখান থেকে ঝরে যাবে আরো একটি তারা। রাজশাহী এবং খুলনার মধ্যকার এই লড়াইয়ে আজ একদল যেমন হাসবে চওড়া মুখে অন্য দল মাঠ ছাড়বে গোমরা মুখে। কাজেই এবারের বিপিএলের সব উত্তেজনা জমা হয়ে আছে আজকের দিনটার জন্য। যে ট্রফির জন্য আজ লড়বে রাজশাহী রয়্যালস এবং খুলনা টাইগার্স সে ট্রফি নিয়ে আনুষ্ঠানিক ফটোসেশন পর্ব সেরেছেন খুলনা অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম ও রাজশাহী অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আজ সন্ধ্যা ৭ টায় শুরু হবে ম্যাচটি। গতকাল দুই প্রতিদ্বন্দ্বি দলের অধিনায়ক ফাইনালের ট্রফি উম্মোচন করলেন । সেই ফটোসেশন পর্বে হাসিমুখ ছিল দুই অধিনায়কেরই। তবে শেষ হাসি তো হাসবেন একজন। একজনকে শেষ করতে হবে না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে। এবারের বিপিএলে দারুন ধারাবাহিক দলটির নাম খুলনা টাইগার্স। লিগ পর্ব শেষে পয়েন্ট তালিকার সবার উপরের জায়গাটি দখল করে এসেছিল কোয়ালিফায়ার পর্বে। আর সে পর্বে রাজশাহী রয়্যালসকে হারিয়ে সবার আগে খুলনা টাইগার্স জায়গা করে নেয় ফাইনালে। অপরদিকে খুলনার কাছে হেরেও ফাইনালের সম্ভাবনা জিইয়ে ছিল রাজশাহীর। দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে চট্টগ্রাম চ্যারেঞ্জার্সকে বিদায় করে আবার ফুইনালে খুলনার সামনে পড়েছে রাজশাহী। তাদের সামনে এখন প্রথম কোয়ালিফায়ারে হারের শোধ নেওয়ার পালা। শেষ ম্যাচটাতে চট্টগ্রামের বিপক্ষে দানবীয় এক ইনিংস খেলে রাজশাহীকে ফাইনালে নিয়ে গেছেন আন্দ্রে রাসের। আজকের ফাইনালেও তার ব্যাটের দিকে তাকিয়ে থাকবে রাজশাহী সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। অপরদিকে খুলনার হয়ে দারুন খেলছে দেশের ক্রিকেটাররা। আজও শান্তু-মুশফিকরা রাজশাহীর মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়াবে সেটা বলাই যায়। তাই লড়াইটা হবে সেয়ানে সেয়ানে সেটাই এখন প্রত্যাশা ক্রিকেট প্রেমীদের।
বিপিএলের গত ছয় আসরে বিভিন্ন দলের হয়ে খেলেছেন বাংলাদেশের সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। কিন্তু একবারও ফাইনালে যেতে পারেনি। এবারে ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মত বিপিএলের ফাইনালে খেলছেন মুশফিক। তাই প্রথমবারের মত ফাইনালে যাওাটাকে স্মরনীয় করে রাখতে চাইবেন মুশফিক সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা। তাছাড়া এবারের বিপিএলে মুশফিকের ব্যাটে বইছে রানের ফোয়ারা। এই মুহূর্তে দেশের সবচেয়ে ধারাবাহিক ব্যাটসম্যান তিনি। ১৩ ম্যাচে ৭৮.৩৩ গড়ে ৪৭০ রান নিয়ে বঙ্গবন্ধু বিপিএলে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় আছেন সবার আগে। অধিনায়ক হিসেবে তো আরো ক্ষুরধার। সামনে থেকে নিপুণ নেতৃত্বে খুলনা টাইগার্সকে সবার আগে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ফাইনালে তুলেছেন। আর বঙ্গবন্ধু বিপিএলের এই ফাইনালই তাকে দিচ্ছে শিরোপা যাতনা ভোলার হাতছানি। এখন আজকের ফাইনালের লড়াইয়ে রাজশাহী রয়্যালসের হারের কফিনে পেরেক পুঁতে দিতে পারলেই ছয়বারের শিরোপা যাতনা ভুলতে পারবেন লাল সবুজের সাবেক এই দলপতি।
অপরদিকে রাজশাহী রয়্যালসের ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্যাপ্টেন আন্দ্রে রাসেল সরাসরি কিছু না বলরেও এক প্রকার হুমকিই দিয়ে রেখেছে খুলনাকে। তিনি আকার ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দিয়েছেন, তারা কাপ জিততে চান। নিজ দলের শক্তি ও সামর্থ্যের প্রতি পূর্ণ আস্থা আছে তার। তিনি বলেন ফাইনালে যখন এসেছি, তখন জয়ের চিন্তা ছাড়া আর অন্য কিছু ভাবার কোনো সুযোগ নেই। আমরা জয় ছাড়া আর কিছু ভাবছিও না। তিনি বলেন আগের রাতে আমরা যেভাবে একটা দল হয়ে খেলতে পেরেছি সেটা দেখলেই বুঝা যায় আসলে আমরা কি করতে পারি। এখন দেখার বিষয় এসব কিছুকে ছাপিয়ে শেষ হাসিটা হাসেন কে। কার হাতে উঠে এবারের বিপিএলের ট্রফি।