কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসনের ব্যাপক প্রস্তুতি

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

কাপ্তাই প্রতিনিধি

শনিবার , ৯ নভেম্বর, ২০১৯ at ৯:১২ অপরাহ্ণ
30

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসন ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে বলে জানা গেছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশ্রাফ আহমেদ রাসেল জানান, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে কাপ্তাই উপজেলায় কোনো প্রাণহানি যাতে না ঘটে সেই জন্য প্রশাসন পূর্ব থেকে প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

উপজেলার চন্দ্রঘোনা, রাইখালী, চিৎমরম, কাপ্তাই এবং ওয়াগ্গা ইউনিয়নে ৫টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে।

ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে বসবাসকারীদের প্রশাসনের উদ্যোগে আশ্রয় কেন্দ্রে নিয়ে আসা হচ্ছে।

এছাড়াও যেকোনো ব্যক্তি বা পরিবার ইচ্ছা করলেই আশ্রয়কেন্দ্রে এসে আশ্রয় নিতে পারবেন বলেও উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান।

যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার নিজে এবং কাপ্তাই ও চন্দ্রঘোনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পুলিশ ফোর্সসহ প্রস্তুত রয়েছেন। উপজেলা সদরে একটি কন্ট্রোল রুমও খোলা হয়েছে। সবাইকে সতর্ক থাকার জন্য কাপ্তাই তথ্য অফিসের মাধ্যমে সমগ্র এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে। পাশাপাশি সার্বিক সহযোগিতা দিতে বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন (বিজিবি)ও তৎপর রয়েছে।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় দমকল বাহিনীকে প্রয়োজনীয় সামগ্রীসহ সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছাড়াও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা প্রদান করার জন্য সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রাখা হয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগকে।

বুলবুলের প্রভাবে কাপ্তাই উপজেলায় আজ শনিবার (৯ নভেম্বর) বিকাল থেকে বৃষ্টি হচ্ছে।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে কাপ্তাই উপজেলার কোথাও যাতে কোনো ধরনের ক্ষয়ক্ষতি বিশেষ করে জানমালের ক্ষতি না হয় সেই জন্য প্রশাসনের পাশাপাশি সকল জনপ্রতিনিধিও সার্বিক সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত রয়েছেন বলে জানা গেছে।

আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থানকারীদের প্রয়োজনীয় খাদ্য সহযোগিতা এবং চিকিৎসা সেবা দেয়ার জন্য ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বলেও জানা গেছে।

এদিকে কর্ণফুলী পেপার মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী ড. এম এম এ কাদেরের নির্দেশে কেপিএম এলাকায় বুলবুলের আঘাত মোকাবেলায় প্রশাসন বিভাগকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

কেপিএমের নিজস্ব দমকল বাহিনী, নিরাপত্তা বাহিনী, সকল কর্মকর্তা কর্মচারী এবং সিবিএ নেতৃবৃন্দও প্রস্তুত রয়েছেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। বুলবুল মোকাবেলায় কেপিএমের সকল কর্মকর্তার ছুটিও বাতিল করা হয়েছে।

x