এবার বিচারক জাহারা মিতু

মঙ্গলবার , ২২ অক্টোবর, ২০১৯ at ৫:১৬ পূর্বাহ্ণ
146

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো শুরু হয়েছে ‘মিসেস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’। এই সুন্দরী প্রতিযোগিতায় বিবাহিত ও ডিভোর্সি নারীরা অংশ নিয়েছেন। এতে বিচারকের দায়িত্ব পালন করছেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৭’ প্রতিযোগিতার প্রথম রানার আপ ও অভিনেত্রী জাহারা মিতু। অভিনেত্রী বলেন, ‘বিচারক হিসেবে অনুষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে খুবই আনন্দিত। আশা করি, এখান থেকে অনেক অভিজ্ঞতা নিতে পারব। একসময় প্রতিযোগী হয়ে বিচারকদের সামনে দাঁড়াতাম, এখন নিজেই বিচার কাজ করছি। গত শনিবার থেকে অডিশন শুরু হয়েছে। শিগগির আমরা টপ ১০০ প্রতিযোগী বাছাই করতে পারব বলে আশা করছি। তিনি আরো বলেন, ‘বিভিন্ন বয়সের, পেশার নারীরা এতে অংশ নেয়ার জন্য আবেদন করেছিলেন। যোগ্যতা সম্পন্ন, মেধাবী, শিক্ষিত নারীরা এতে অংশ নিচ্ছেন, এটা ইতিবাচক দিক। প্রতিযোগীদের অংশগ্রহণ দেখে মুগ্ধ হয়েছি। শুধু চেহারা দেখে আমরা বাছাই করছি না। তার সঙ্গে বিশেষভাবে শিক্ষাগত যোগ্যতা দেখছি। একটি বিষয় আমরা মাথায় রেখেছি, যিনি চ্যাম্পিয়ন হবেন তিনি বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন। তাই কোনো ধরনের ছাড় দিতে আমরা প্রস্তুত নই। জাহারা মিতুর সঙ্গে বিচারক হিসেবে আরো দায়িত্ব পালন করছেন অন্তু করিম। এ ছাড়া মূল অনুষ্ঠানে বিচারক প্যানেলে পরিবর্তন আসবে। বিষয়ভিত্তিক প্রতিযোগিতার প্রতি পর্বে নির্দিষ্ট বিষয়ে অভিজ্ঞদের অতিথি বিচারক হিসেবে নিয়ে আসার পরিকল্পনা আছে বলে জানিয়েছেন আয়োজক কর্তৃপক্ষ। এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে অপূর্ব ডটকম। আয়োজক প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানা যায়, গত ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত ছিল ‘মিসেস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’-এ আবেদনের সময়। সেখানে প্রায় আট হাজার নারী আবেদন করেন। তাদের মধ্যে ছবি ও বায়োডাটা দেখে ৫০০ প্রতিযোগী বাছাই করা হয়। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে প্রাথমিক অডিশন। প্রাথমিক অডিশনে প্রায় ২০০ প্রতিযোগী টিকে আছেন। তাদের মধ্য থেকে বাছাই করে ১০০ প্রতিযোগীকে চূড়ান্ত করা হবে। এরপর বিভিন্ন ধাপে প্রতিযোগী বাছাইয়ের পর ‘মিসেস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’-এর গ্র্যান্ড ফিনালে আগামী ৩০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। ‘মিসেস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ বিজয়ী বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়ে আগামী ডিসেম্বরে চীনে অংশ নিবেন।

x