উড়ুক্কু ট্যাক্সিতে ছাদ থেকে ছাদে যাত্রী পরিবহন

মঙ্গলবার , ১৮ জুন, ২০১৯ at ৫:৪৩ পূর্বাহ্ণ

ভবিষ্যত প্রজন্মের উড়ুক্কু ট্যাক্সি সেবার নকশা প্রকাশ করেছে অ্যাপভিত্তিক গাড়ি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান উবার। এক বাড়ির ছাদ থেকে অন্য বাড়ির ছাদে যাত্রী পরিবহন করা হবে এই সেবার মাধ্যমে। উবারএয়ার নামের এই সেবায় বৈদ্যুতিক জেটচালিত উড়ুক্কুযান ব্যবহার করা হবে।
এই উড়ুক্কুযানগুলো আংশিক হেলিকপ্টার, আংশিক ড্রোন এবং আংশিক স্থির পাখার এয়ারক্রাফট বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড মিরর। উবারের জন্য এই উড়ুক্কুযানটি বানিয়েছে বোয়িং এবং অন্যান্য অংশীদার প্রতিষ্ঠান। অনেকগুলো ছোট রোটর ব্যবহার করা হয়েছে এতে। উল্লম্বভাবে ওঠানামা করার পাশাপাশি আড়াআড়িভাবে উড়তে পারে উডুক্কুযানটি। খবর বিডিনিউজের।
স্মার্টফোন অ্যাপের মাধ্যমেই এই সেবার জন্য অনুরোধ করতে পারবেন গ্রাহক। রাস্তায় গাড়ি ডাকার মতোই অ্যাপ দিয়ে উড়ুক্কু ট্যাক্সি ডাকা যাবে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। চারজন যাত্রী এবং একজন পাইলট নিতে পারবে এই ট্যাক্সিগুলো। নির্দিষ্ট বাড়ির ছাদে ‘স্কাইপোর্টস’ নামের হাবগুলোতে ওঠানামা করবে উবারের উড়ুক্কু ট্যাক্সি। মূলত পাইলট ছাড়া স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ট্যাক্সিগুলো ওড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে উবারের।
উবারের উড়ুক্কু ট্যাক্সি বিভাগ উবার এলিভেট-এর পণ্য প্রধান নিখিল গোয়েল বলেন, ‘আমরা ভবিষ্যতের অধরা উড়ুক্কু গাড়ির পরিকল্পনার আরও এক ধাপ কাছে পৌঁছে গেছি।’ ২০২০ সালে অস্ট্রেলিয়ার মেলবর্ন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডালাস ও লস অ্যাঞ্জেলেসে পাইলটহীন এই ট্যাক্সির পরীক্ষা চালাবে উবার। ২০২৩ সালে বাণিজ্যিক এই সেবা চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির। পরীক্ষামূলক ফ্লাইটে মেলবনের্র ওয়েস্টফিল্ড শপিং সেন্টার থেকে আন্তর্জাতিক এয়ারপোর্টে যাত্রী পরিবহন করা হবে। এই সেবার মাধ্যমে ১৯ কিলোমিটার পথ ১০ মিনিটে পাড়ি দেওয়া যাবে। গাড়িতে এই রাস্তা পাড়ি দিতে সময় লাগে প্রায় এক ঘন্টা।

x