উত্তাল ঢেউয়ের সাথে অপূর্ব ক্রীড়াশৈলী

কক্সবাজারে শেষ হলো তিনদিনের জাতীয় সার্ফিং প্রতিযোগিতা

আহমদ গিয়াস, কক্সবাজার

রবিবার , ২৮ এপ্রিল, ২০১৯ at ৯:১৬ অপরাহ্ণ
84
কক্সবাজার বঙ্গোপসাগরের উত্তাল ঢেউয়ের সাথে অপূর্ব ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শনীর ৩ দিনের এক জাতীয় আসর ‘ওয়ালটন পঞ্চম জাতীয় সার্ফিং প্রতিযোগিতা’ আজ রবিবার (২৮ এপ্রিল) শেষ হয়েছে।
শহরের লাবণী পয়েন্ট সৈকতে বাংলাদেশ সার্ফিং ফেডারেশন আয়োজিত এ প্রতিযোগিতার তিন ক্যাটাগরিতে ১১টি সংগঠনের নারীসহ শতাধিক সার্ফার অংশ নেন।
প্রতিযোগিতায় ছেলেদের সিনিয়র বিভাগে প্রথম হয়েছেন মো. ইউনুচ, দ্বিতীয় মো. সেলিম এবং তৃতীয়  হয়েছেন মো. মান্নান। ছেলেদের জুনিয়র বিভাগে প্রথম হয়েছেন সাগর হোসেন, দ্বিতীয় মো. আব্দুল হান্নান, তৃতীয় হয়েছেন মো. জাহেদ। এছাড়াও নারী বিভাগে প্রথম হয়েছেন শবে মেহেরাজ, দ্বিতীয় আয়েশা আকতার এবং তৃতীয় হয়েছেন রিফা আকতার।
সমাপনী দিনে প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন বাংলাদেশ সার্ফিং এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শেখ মো. ইউসুফ হারুন।
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটনের কর্মমকর্তা এফ এম ইকবাল বিন আনোয়ার ও রেডিয়েন্ট ফিশ ওয়ার্ল্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শফিকুর রহমান চৌধুরী প্রমুখ।
আয়োজক সংস্থা বাংলাদেশ সার্ফিং ফেডারেশনের যুগ্ম সেক্রেটারি মোয়াজ্জেম হোসেন রোকন জানান, দেশে নতুন নতুন সার্ফার তৈরি ও কক্সবাজারের পর্যটন শিল্পকে বিশ্বের দরবারে আরো পরিচিত করার লক্ষ্যেই এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।
তিনি জানান, এবারের প্রতিযোগিতায় ১১টি ক্লাবের শতাধিক সার্ফার অংশ নিয়েছে। এরমধ্যে নারী সার্ফারও ছিল ১০জন। তাদের মধ্য থেকে তিন ক্যাটাগরিতে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হিসাবে ৯ জনকে পুরস্কৃত করা হয়েছে।
নারী বিভাগে প্রত্যাশিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে দারুণ উচ্ছসিত শবে মেহেরাজ। উচ্ছসিত কন্ঠে মেহেরাজ বলেন, ‘আমি চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে গত প্রায় দেড় মাস ধরে অনেক মনোযোগ দিয়ে অনুশীলন করেছি। দিনে দুই তিনবারও সাগরে নেমেছি। আজ আমার পরিশ্রম সার্থক হয়েছে।‘
শবে মেহরাজ ২০১৭ সালেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। আর ২০১৮ সালে হন রানার্স আপ। তার স্বপ্ন আমেরিকায় গিয়ে সার্ফিং করা।
এবারের প্রতিযোগিতায় রানার্স আপ হওয়া আয়েশা আকতারের স্বপ্নও আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়ায় গিয়ে সার্ফিং করা।
আয়েশা বলেন, ‘প্রথম হইনি বলে মোটেও মন খারাপ করিনি কিন্তু খুব মনোযোগ দিয়ে নতুন বোট নিয়ে আমি প্র্যাকটিস করেছিলাম। আমারও স্বপ্ন, গুরু রাশেদ ভাইয়ের মতোই ক্যালিফোর্নিয়ায় গিয়ে সার্ফিং করা।’
গত শুক্রবার (২৬ এপ্রিল)  সকালে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান আখতারুজ্জামান খান কবীর তিন দিনব্যাপী এ প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।
বাংলাদেশ সার্ফিং ফেডারেশনের সভাপতি ও জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব শেখ ইউসুফ হারুন-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) মো. আশরাফুল আফসার, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, স্পন্সর প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন-এর পরিচালক ইকবাল বিন আনোয়ার ডনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।
x