উত্তর কাট্টলী, দক্ষিণ কাট্টলী ও হালিশহর মৌজাসমূহের জমির দিয়ারা জরিপের ফলে উদ্ভূত সমস্যা নিরসনে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আবেদন

মঙ্গলবার , ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ at ৩:৪৮ পূর্বাহ্ণ
58

উত্তর কাট্টলী, দক্ষিণ কাট্টলী ও হালিশহর মৌজাসমূহের জমির মালিকদের অনেকে সমাপ্ত দিয়ারা জরিপের ফলে বিবিধ অসুবিধায় পড়েছেন। ব্যাপক ও গভীর প্রচার না হওয়ার ফলে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। আজকালের ব্যস্ত জীবনে লোকজনকে দেশে বিদেশে অনেক দৌড়াদৌড়ি করতে হয় বলেও জরিপ বিষয়টা তাদের নজর এড়িয়ে গেছে। তদুপরি অনেকে মনে করছেন হয়ত দিয়ারা নদীবা সমুদ্রভাঙা এলাকাতেই এ জরিপ হবে তীরবর্তী জমিতে। যে সকল জমি সদূর অতীত থেকে ভাঙাগড়ার ঊর্ধ্বে সে সকল এলাকার জমি দিয়ারা জরিপের আওতায় পড়বে না।
এ অবস্থায় অনেক ভূমি মালিক যেমন নিজ জমি জরিপভুক্ত করতে ব্যর্থ হয়েছেন তেমনি অনেক সুযোগসন্ধানী চালক ব্যক্তি এর সুযোগ গ্রহণ করে বা জরিপ কর্মীদের কারও কারও দুর্নীতির কারণে নিজ নাম জরিপভুক্ত করে পরবর্তীতে দ্রুত সে জমি হস্তান্তর করে ফেলছেন। অন্যদিকে অনেক প্রকৃত মালিক স্বত্বের বাইরে অতিরিক্ত জমি জরিপ করিয়ে সমস্যা জটিল করে তুলেছেন।
এর ফলে মামলা হামলা সৃষ্টি হচ্ছে। মানুষের কষ্ট বেড়ে যাচ্ছে। আদালত মামলায় ভারাক্রান্ত হচ্ছে। সরকার খাজনা পাচ্ছে না। সমাজে শান্তি বিনষ্ট হচ্ছে।
এমতাবস্থায় সরকার বিশেষ করে ভূমি মন্ত্রী যিনি ডিজিটেলাইজেশন ও অন্যবিধ ব্যবস্থার মাধ্যমে জনদুর্ভোগ নিরসনে কাজ করছেন তার নিকট আবেদন যেন তিনি দিয়ারা জরীপ সাময়িকভাবে স্থগিত করে ভূমি জরিপ বিভাগ বা এ.সি. ল্যান্ডের মাধ্যমে নির্দিষ্ট কম সময়ের মধ্যে এর প্রতিবিধানের ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।
জালাল আহমেদ চৌধুরী, উত্তর কাট্টলি চট্টগ্রাম।

x