ইছামতীতে নিখোঁজ যুবকের লাশ ৪ দিন পর কর্ণফুলিতে উদ্ধার

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

সোমবার , ১৫ জুলাই, ২০১৯ at ১০:৪৭ অপরাহ্ণ
94

রাঙ্গুনিয়ায় ইছামতী নদীর স্রোতে ভেসে গিয়ে নিখোঁজ তরুণ দিদারুল আলমের (২০) লাশ কর্ণফুলি নদীতে পাওয়া গেছে নিখোঁজ হওয়ার চারদিন পর।

আজ সোমবার (১৫ জুলাই) দুুপুরে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে লাশ সনাক্ত করেন দিদারুলের চাচা বাচা মিয়া।

রবিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় লোকজন কর্ণফুলি সেতু (নতুন ব্রিজ) এলাকায় কর্ণফুলি নদীতে লাশ দেখতে পেয়ে বাকলিয়া থানাকে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

দিদারুল আলম রাজানগর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড হালিমপুর এলাকার আবুল কাশেম মাস্টার বাড়ির বদিউল আলমের পুত্র।

দক্ষিণ রাজানগর ইউপি সদস্য জসিম উদ্দিন মাতব্বর বলেন, ‘ময়নাতদন্তের পর দিদারুল আলমের লাশ নিজ বাড়ির কবরস্থানে আজ সোমবার সন্ধ্যায় জানাজার পর দাফন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) ভোরে হালিমপুর এলাকার আবদুর রহমান ও নিখোঁজ যুবক দিদারুল আলম ইছামতী নদীর চরে সবজি তুলতে যায়। সবজি তোলার পর সকাল ১১টার দিকে ইছামতী নদীতে বাঁশের চালি ভেসে যেতে দেখে তা ধরতে নদীতে ঝাঁপ দেয় দু’জন। পাহাড়ি ঢলে বয়ে যাওয়া পানির তীব্র স্রোতে ভেসে যায় তারা। এসময় পানির তীব্র স্রোতের সাথে লড়াই করে আবদুর রহমান সাঁতার কেটে তীরে উঠতে পারলেও স্রোতে ভেসে যায় দিদারুল আলম। চার দিন পর তার লাশ মিলল নগরীর বাকলিয়া থানার কর্ণফুলী নদীর নতুন ব্রিজ এলাকায়।

ফায়ার সার্ভিসের রাঙ্গুনিয়া স্টেশনের কর্মকর্তা আবু বকর ছিদ্দিক বলেন, ‘দিদারুল আলম নিখোঁজের পর চট্টগ্রামের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান চালায়। আমরাও তিনদিন ধরে খোঁজ নিয়েছি। নদীতে অতিরিক্ত স্রোত থাকায় লাশটি কর্ণফুলিতে চলে যায়।’

x