আমরাই জিতব, প্রত্যয়ী ট্রাম্প

রবিবার , ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ at ৫:১৬ পূর্বাহ্ণ

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট ‘অভিযানের’ গতি আরও বাড়াতে চাইছেন ডেমোক্র্যাটরা। তাদের সাফ কথা, হাতে আর বেশি সময় নেই। গোটা দেশের জন্য ট্রাম্প এতটাই বিপজ্জনক যে, যা করার দ্রুত করে ফেলতে হবে। হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভস-এর স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি মার্কিন কংগ্রেসে বলেছেন, ইউক্রেন কেলেঙ্কারিতে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যে যে অভিযোগ উঠেছে, সেগুলি নথিভুক্ত করে পরবর্তী পদক্ষেপ করা হোক। ক্যাপিটল হিলে এক সাংবাদিক বৈঠকে পেলোসি বলেন, ‘তথ্যগুলি চ্যালেঞ্জ করার কোনও জায়গাই নেই। স্বার্থসিদ্ধির জন্য ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন প্রেসিডেন্ট। নিজের প্রতিদ্বন্দ্বীর বিরুদ্ধে তদন্ত করানোর জন্য ইউক্রেনকে অনৈতিক চাপ দিয়েছেন।’
বিশেষজ্ঞেরা বলছেন, ইমপিচমেন্টের জন্য অভিযোগ নথিভুক্ত করার ক্ষমতা রয়েছে হাউসের বিচারবিভাগীয় কমিটির হাতে। তারা সেটা করে হাউসেই ভোটাভুটিতে ফেলতে পারেন। গোটা হাউস যদি তাতে সায় দেয়, তার পরে তা যাবে হাউস ফ্লোরে। যা থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে ট্রাম্পকে ইমপিচ করা শুরু হবে। তার পরেই আসল সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে সেনেটে। সেখানে শুনানিতে ঠিক করা হবে, ট্রাম্পকে আদৌ পদচ্যুত করা যাবে কি না।
সব দেখেশুনে চুপ বসে নেই রিপাবলিকানরাও। নয়া আক্রমণ শানিয়ে তারা বোঝাতে চাইছেন, প্রেসিডেন্টকে ইমপিচ করার জন্য ডেমোক্র্যাটদের তাড়াহুড়ো দেখেই বোঝা যাচ্ছে, তাদের অভিযোগটা কতটা সারবত্তাহীন এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।
বুধবার ইমপিচমেন্ট নিয়ে হাউসের বিচারবিভাগীয় কমিটির প্রথম শুনানি থেকে বিতকের্র সূত্রপাত। ট্রাম্প কী কী ভুল পদক্ষেপ করেছেন, সে প্রশ্ন থেকে সাত ঘণ্টার শুনানিতে উঠে আসে ট্রাম্পকে তার কাজের জন্য সাংবিধানিক দিক থেকে কী ধরনের পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে। রিপাবলিকানদের প্রবল প্রতিরোধের মুখেও শুনানিতে উঠে এসেছে, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির জয়েলেনস্কির সঙ্গে বৈঠক করে ট্রাম্প যে সুবিধে নেওয়ার চেষ্টা করেছেন, তা ইমপিচ করার মতোই বিষয়। শুনানিতে চার জন সাংবিধানিক বিশেষজ্ঞের মধ্যে তিন জনই এ ব্যাপারে একমত হয়েছেন।
এই বিতর্কের মধ্যেই মুখ খুলেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। লন্ডনে ন্যাটোর শীর্ষ সম্মেলন থেকে ফিরে এসেই ডেমোক্র্যাটদের উদ্দেশে তিনি টুইটে লিখেছেন, ‘আপনারা যদি আমাকে ইমপিচ করতে চান, তা হলে এখনই করে ফেলুন।’ তার সংযোজন, ‘ইমপিচমেন্ট শুনানির ফলে রিপাবলিকানরা একজোট হয়েছেন। আমরাই জিতব।’ তিনি দাবি করেছেন, ‘নিষ্কর্মা ডেমোক্র্যাটরা গত কাল হাউসে ঐতিহাসিক ভাবে খুবই খারাপ দিন কাটিয়েছেন। ওদের হাতে ইমপিচমেন্ট করার মতো কোনও মালমশলা নেই, দেশকে ছোট করে চলেছেন ওরা। কিছুতেই কিছু এসে যায় না ওদের। ওরা পাগল হয়ে গিয়েছেন। তাই বলছি, যদি আমাকে ইমপিচ করতে হয়, দ্রুত করে ফেলুন। যাতে আমরা সেনেটে একটা স্বচ্ছ বিচার দেখতে পাই এবং আমাদের দেশ রোজকার কাজেকম্মে ফিরতে পারে।’

x