আবুল খায়ের স্টিল মিল গেটে আনসারের গুলিতে যুবক নিহত

মায়ের দাবি পরিকল্পিত হত্যা

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

শুক্রবার , ২৭ জুলাই, ২০১৮ at ৫:৩২ পূর্বাহ্ণ
558

সীতাকুণ্ডে আবুল খায়ের ষ্টিল মিলের আনসারের গুলিতে সাহাবউদ্দিন (২৩) নামে স্থানীয় এক যুবক নিহত হয়েছেন। এঘটনায় আহত হয়েছেন কারখানার আনসার সদস্য মিজানুর রহমান, গার্ড সফিউল্ল্যাহ ও অসিত বরুণ। গত বুধবার মধ্যরাতে উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের শীতলপুর পাহাড়ের পাদদেশে আবুল খায়ের স্টিল মিল কারখানার গেটে এ ঘটনা ঘটে। নিহত যুবক দক্ষিণ সোনাইছড়ি বারআউলিয়া হাফিজ জুট মিলস কলোনী এলাকার মরহুম জুনুর পুত্র। খবর পেয়ে সীতাকুণ্ড থানার এসআই সাইফুল্লার নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে গুলিবিদ্ধ সাহাবউদ্দিনের লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়না তদন্তের জন্য লাশ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় আনসার কমান্ডার আবু তাহের বাদী হয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সীতাকুণ্ড থানায় মামলা করেছেন। তবে নিহত সাহাবউদ্দিনের মা দেলোয়ারা বেগম জানান, তাঁর পাঁচ মেয়ে ও একমাত্র ছেলে সাহাবউদ্দিন। তাঁর ছেলেকে বুধবার বিকেলে ঘর থেকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে সাহাবউদ্দিনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয় বলে দাবি করেন তার মা দেলোয়ারা বেগম। কে বা কারা ডেকে নিয়ে গেছে তিনি তা বলতে পারেননি। জানা যায়, শীতলপুর চৌধুরীঘাটা পাহাড়ের পাদদেশে আবুল খায়ের স্টিল মিলস এলাকায় দুই যুবক রাতে ফ্যাক্টরীর আশপাশে ঘোরাঘুরি করছিল। এসময় বিষয়টি কর্তব্যরত আনসার সদস্যদের চোখে পড়ে। এরপর আনসার সদস্যরা দুই যুবককে ফ্যাক্টরী এলাকায় আসার কারণ জিজ্ঞেস করলে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে আনসার সদস্যরা গুলি করলে সাহাবউদ্দিন নামে এক যুবক ঘটনাস্থল নিহত হন। তবে অপর যুবকের নাম জানা যায়নি। এবিষয়ে আবুল খায়ের ষ্টীল মিলস কর্মকর্তা মো.ইমরুল হাসান ভুঁইয়া জানান, বুধবার রাতে স্থানীয় কয়েকজন লোক ফ্যাক্টরী এলাকায় দেখা যায়। এসময় দায়িত্বরত আনসার সদস্যরা গুলি করলে ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন নিহত হন। সীতাকুণ্ড থানার ওসি ইফতেখার হাসান বলেন, ঘটনার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে জানা যায়, গুলিবিদ্ধ যুবক রাতে কারখানা এলাকায় চুরি করতে যায়। এসময় আনসারের গুলিতে সাহাবউদ্দিন নামে একজন নিহত হয়।

x