আজ জামিন পেলে কালই বিদেশ যাবেন খালেদা

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব এমপি হারুনুর রশীদ

আজাদী অনলাইন

মঙ্গলবার , ১ অক্টোবর, ২০১৯ at ৮:২১ অপরাহ্ণ

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া জামিন পেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাবেন বলে জানিয়েছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ।

কারা হেফাজতে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থাকা দলীয় নেত্রীকে আজ মঙ্গলবার (১ অক্টোবর) দেখে আসার পর একথা জানিয়েছেন তিনি।

বিএনপি’র আরও দুই সংসদ সদস্য উকিল আবদুস সাত্তার ও আমিনুল ইসলামকে সঙ্গে নিয়ে বিকাল ৪টার দিকে বিএসএমএমইউ’র কেবিন ব্লকে খালেদা জিয়াকে দেখতে যান হারুন। বিডিনিউজ

প্রায় এক ঘণ্টা দলীয় প্রধানের সঙ্গে থাকার পর বেরিয়ে হারুন সাংবাদিকদের বলেন, ‘উনার (খালেদা জিয়া) যে সমস্ত অসুখ-বিসুখ রয়েছে, এগুলোর জন্য উনার অবিলম্বে বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসার দরকার। এটার জন্যে বিদেশে তার চিকিৎসার দরকার। আমি সরকারের প্রতি আহ্বান জানাব, বাস্তবিকই উনার জামিন পাওয়ার যে নৈতিক অধিকার, এই জামিনের অধিকার থেকে তাকে যেন বঞ্চিত করা না হয়।‘

দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ড নিয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া গত বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে রয়েছেন।

সুপ্রিম কোর্ট ও নিম্ন আদালত মিলে খালেদার বিরুদ্ধে এখন ১৭টি মামলা বিচারাধীন। এর মধ্যে দুটি মামলায় (জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট ও জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা) জামিন পেলেই তিনি কারাগার থেকে মুক্তি পেতে পারেন বলে তার আইনজীবীদের ভাষ্য।

এ দুই মামলায় তার ১৭ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১০ বছরের সাজার রায়ের বিরুদ্ধে খালেদার আবেদন আপিল বিভাগে এবং দাতব্য ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় নিম্ন আদালতের দেয়া ৭ বছরের সাজার বিরুদ্ধে করা আপিল হাই কোর্টে বিচারাধীন।

বিএনপি অভিযোগ করে আসছে, সরকারই আদালতকে প্রভাবিত করে খালেদার জামিন আটকে রেখেছে।

জামিন পেলে বিএনপি চেয়ারপারসন কি বিদেশে চিকিৎসার জন্য যেতে চান- প্রশ্ন করা হলে হারুন বলেন, ‘উনি চিকিৎসার সুযোগ পেলে তো অবশ্যই বিদেশ যাবেন। উনি আজকে জামিন পেলে কালকেই বিদেশ যাবেন।’

‘উনি যদি আজকে জামিন পান, প্রথম অগ্রাধিকার হবে উনার চিকিৎসা,’ বলেন বিএনপির এই যুগ্ম মহাসচিব।

চিকিৎসার জন্য গত ১ এপ্রিল থেকে বঙ্গবন্ধু শেষ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে রয়েছেন ৭৪ বছর বয়সী খালেদা। বিএনপি তাকে বেসরকারি ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করাতে চাইলেও তাতে সরকারের সায় মেলেনি।

হারুন বলেন, ‘তার শারীরিক কনডিশন যেরকম, তার চিকিৎসা বাংলাদেশে বিশেষায়িত হাসপাতালে নেই। আজকে ওবায়দুল কাদের (আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক) অসুস্থ হয়েছেন, তাকে সিঙ্গাপুর নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আজকে তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে কেন এই চিকিৎসার সুযোগ থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে? এটা সারাদেশের মানুষ জানতে চায়।’

খালেদার বিদেশ যাওয়া নিয়ে নানা খবর বিভিন্ন সময় গণমাধ্যমে আলোচনায় এসেছে।

প্যারোলে মুক্তি নিয়ে খালেদা চিকিৎসার জন্য যুক্তরাজ্যে যাচ্ছেন বলে একটি সংবাদপত্র কিছু দিন আগে খবর প্রকাশ করায় অসন্তোষ জানিয়েছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

x