অসুস্থ হওয়ার বছরখানেক আগেই রক্তে মিলবে ক্যান্সারের উপস্থিতি

শনিবার , ২ জুন, ২০১৮ at ৯:১৮ পূর্বাহ্ণ
61

রক্তের নতুন এক পরীক্ষায় অসুস্থ হওয়ার বছরখানেক আগেই ১০ ধরনের ক্যান্সার শনাক্ত করা যাবে বলে দাবি করেছেন মার্কিন বিজ্ঞানীরা। যুগান্তকারী এ পরীক্ষা পদ্ধতিতে ক্যান্সারের কারণে সৃষ্ট টিউমার মানবদেহে বিস্তৃত হওয়ার অনেক আগেই এর উপস্থিতি নির্ণয় করা যাবে। এর ফলে প্রাণঘাতী রোগটির চিকিৎসাপদ্ধতিতে নাটকীয় পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর বিডিনিউজের।

ক্লিভল্যান্ড সেন্টার ইন ওহাইওর যে গবেষক দল যুগান্তকারী এ পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে কাজ করেছে তাদের দলনেতা ড. এরিক ক্লেইন একে ক্যান্সার চিকিৎসার ক্ষেত্রে ‘হলি গ্রেইল’ হিসেবে অ্যাখ্যায়িত করেছেন। এরই মধ্যে এক হাজার ছয়শরও বেশি রোগীর ওপর পরীক্ষা চালিয়ে ৯০ শতাংশ ক্ষেত্রে পদ্ধতিটির সফলতা পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। তাদের পরীক্ষায় ৭৪৯ জনের ক্যান্সার নেই বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে, রোগ ধরা পড়েছে ৮৭৮ জনের।

লিকুইড বায়োপসি’ নামের এ পরীক্ষাটিতে অবশ্য ভিন্ন ভিন্ন ক্যান্সারের ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন মাত্রার সতর্কতা পাওয়া গেছে।

গবেষকরা বলছেন, অগ্নাশয়,ডিম্বাশয়, যকৃৎ ও পিত্তথলির ক্যান্সারে আক্রান্ত প্রতি ৫ রোগীর ৪ জনেরই রোগ সঠিকভাবে চিহ্নিত করা সম্ভব হয়েছে। ৭৭ ও ৭৩ শতাংশ ক্ষেত্রে এটি লিম্ফোমা ও মেলোমা ক্যান্সার শনাক্ত করতে পারে। প্রতি তিন রোগীর মধ্যে দুইজনের অন্ত্রের ক্যান্সারও সফলভাবে শনাক্ত করতে পারে এ পরীক্ষা। ৫৯ শতাংশ ক্ষেত্রে সঠিকভাবে নির্ণয় করতে পারে ফুসফুসের ক্যান্সার; মাথা ও ঘাড়ের ক্যান্সারের ক্ষেত্রে এই পরীক্ষার সফলতার হার ৫৬ শতাংশ, বলছেন গবেষকরা।

. এরিক ক্লেইন বলেন, ‘বেশিরভাগ ক্যান্সারই একেবারে শেষ পর্যায়ে ধরা পড়ে। কিন্তু এই লিকুইড বায়োপসি কারো রোগ ধরা পড়া কিংবা বিস্তৃত হওয়ার কয়েক মাস কি বছর আগেই ক্যান্সার শনাক্তের সুযোগ করে দিচ্ছে।

ক্লেইনসহ অন্যন্য গবেষকরা তাদের এ ‘লিকুইড বায়োপসি’ পরীক্ষা পদ্ধতির খুঁটিনাটি আমেরিকান সোসাইটি অব ক্লিনিকাল অনকোলজির বার্ষিক সম্মেলনে উপস্থাপন করবেন। গতকাল শুক্রবার থেকে শিকাগোতে শুরু হওয়া এ সম্মেলন আগামী ৫ জুন পর্যন্ত চলবে। ব্যক্তির দেহ থেকে টিস্যু নমুনা নিয়ে করা নতুন এ রক্ত পরীক্ষার ফল দুই সপ্তাহের মধ্যে পাওয়া যাবে বলেও জানানো হয়েছে। পর্যবেক্ষকরা বলছেন, নতুন এ রক্ত পরীক্ষাকে একটি সার্বজনীন পদ্ধতিতে পরিণত করে বিস্তৃত অর্থে মানুষের জীবন বাঁচানোর কাজ এখনো বহুদূরে। তবে ক্যান্সার শনাক্তে বিজ্ঞানীদের এ পরীক্ষা সঠিক পথেই আছে, প্রাথমিক অবস্থাতে রোগ শণাক্ত করা গেলে আক্রান্তকে সারিয়ে তোলা সহজ হবে বলেও মন্তব্য তাদের।

x