অভিযানেও থেমে নেই ইয়াবা পাচার

টেকনাফের তিন কারবারি চকরিয়ায় গ্রেপ্তার, মাইক্রোবাস জব্দ

চকরিয়া প্রতিনিধি

শনিবার , ২৬ মে, ২০১৮ at ৫:১৬ পূর্বাহ্ণ
290

সারাদেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাদকবিরোধী সাঁড়াশি অভিযানে গ্রেপ্তার এবং ‘বন্দুকযুদ্ধে’ প্রতিদিন অসংখ্য মাদক কারবারি নিহতের পরও থেমে নেই ইয়াবা পাচার। প্রতিদিন অভিনবপন্থায় ইয়াবা পাচার অব্যাহত রয়েছে। কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে একটি প্রাইভেট মাইক্রোবাসে (ভক্সি) করে চট্টগ্রামে পাচারের সময় চকরিয়ায় মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে জব্দ করা হয়েছে একটি ইয়াবার চালান। এ সময় গ্রেপ্তার করা হয় টেকনাফ সদর এলাকার প্রতিষ্ঠিত ইয়াবা কারবারি তিনজনকে। একইসঙ্গে ইয়াবা চালান বহনে ব্যবহৃত মাইক্রোবাসটিও জব্দ করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার ভোররাতে চট্টগ্রামকক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের হাসেরদীঘি এলাকায় ব্যারিকেড দিয়ে এই অভিযান চালায় চকরিয়া থানার পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, ইতোপূর্বেও টেকনাফ থেকে চট্টগ্রামে পাচারের সময় বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ একই মাইক্রোবাসটি (ঢাকামেট্টো২৬৮৭২৬) জব্দ করেছিল পুলিশ।

গ্রেপ্তার টেকনাফের তিন ইয়াবা কারবারি হলেনটেকনাফ পৌরসভার হাজম পাড়ার শামশুল আলমের ছেলে সাদ্দাম হোসেন (২৫), ডেইলপাড়ার বশির আহমদের ছেলে মো. ইসমাইল (২৮) ও একই এলাকার আবদুল গফুরের ছেলে মনির আলম (২৭)

চকরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. রুহুল আমিন জানান, গোপন খবরের ভিত্তিতে মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে মাইক্রোবাসটিতে তল্লাশির সময় উদ্ধার করা হয় ছয়টি পোটলা। প্রতি পোটলায় ২০০ পিস করে সর্বমোট ১২০০ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়।

চকরিয়া থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার টেকনাফের তিন ইয়াবা কারবারি স্বীকার করেছেন তারা এসব ইয়াবা চট্টগ্রামে পাচার করছিলেন। ইতোপূর্বেও একই গাড়ি দিয়ে তারা ইয়াবা পাচার করেছেন বলেও স্বীকার করেন। এ ব্যাপারে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে থানায় মামলা রুজু করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।’

x