অপরাধ মানেই কিশোর মুখ

ব্যবহার করা যায় সস্তায়

ঋত্বিক নয়ন

শনিবার , ২০ জুলাই, ২০১৯ at ৭:৩৮ পূর্বাহ্ণ

এখন অপরাধ মানেই কিশোর মুখ। সেটা হত্যা হোক, অপহরণ, ছিনতাই কিংবা ধর্ষণ। পেশাদার খুনি হিসেবে কিশোরদের ব্যবহার বাড়ছে। কারণ তাদের সস্তায় ‘কেনা’ যায়। লেখাপড়া ফাঁকি দিয়ে বখাটেপনায় মেতে উঠছে অনেক কিশোর। এরা এখন এলাকার আধিপত্য বিস্তারের লড়াইয়ে লিপ্ত রয়েছে। আবার অনেকে ছাত্রলীগের নাম দিয়ে নগরীর পাড়ায়-মহল্লায় কিশোর ও বখাটে গ্যাং বানিয়ে বিভিন্ন অপকর্ম করছে। র‌্যাব-পুলিশের তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসীদের হয়ে এরা অপরাধ জগৎ নিয়ন্ত্রণ করছে। শীর্ষ অপরাধীরা এখন গডফাদারের ভূমিকায়। নেপথ্যে থেকেই তারা নতুন সন্ত্রাসীদের মাঠে নামিয়েছে। আবার যে যত ভয়ঙ্কর তার হাতে উঠে আসছে তত উন্নতমানের অস্ত্র।
সমাজবিজ্ঞানী ড. অনুপম সেন এ ব্যাপারে আজাদীকে বলেন, এসব অপরাধের সঙ্গে জুড়ে যাচ্ছে যারা, তাদের সঙ্গে পরিবারের একপ্রকার বিচ্ছিন্নতা আছে। পরিবার তাদের অন্ন, শিক্ষা এবং অন্যান্য যোগান না দিতে পারায় নিম্নবিত্ত পরিবারের সন্তানরা যেমন ছেলেবেলা থেকেই পরিবার থেকে আলাদা হয়ে যায়, তেমনি উচ্চ মধ্যবিত্ত বা উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তানেরা অতি স্বচ্ছলতার সুযোগে ভোগে নিমজ্জিত হয়।
কিশোর অপরাধ প্রসঙ্গে সিএমপির উপ-কমিশনার (গোয়েন্দা বন্দর) মোস্তাইন হোসেন বলেন, কিশোর অপরাধীদের নিয়ন্ত্রণ করতে হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ও পরিবারে অনুশাসন বাড়াতে হবে। শুধু পুলিশ ব্যবস্থা নিলে কিশোর অপরাধীদের নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না। কোনো শিক্ষার্থী তার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে না গেলে প্রতিষ্ঠানের পক্ষে অভিভাবককে অবহিত করতে হবে। অভিভাবকের উচিত ছেলেরা কোথায় কোথায় যায় তার খোঁজখবর রাখা। কার সঙ্গে মিশে তার খোঁজ নেওয়া। সর্বশেষ গত ১৮ জুলাই কথা কাটাকাটির জের ধরে নগরীর পাহাড়তলীতে বন্ধুরা পিটিয়ে হত্যা করেছে এক তরুণকে। ওই তরুণ একটি কিশোর অপরাধী গ্যাং-এর সদস্য বলে পুলিশ জানিয়েছে।
১২ জুলাই পদ্মা সেতু তৈরি নিয়ে ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার আরমানের বয়স ১৯ বছর। ১০ জুলাই খুলশী থানা পুলিশ হাজী মুহাম্মদ মহসীন কলেজের ছাত্র জিয়াউল হক নয়নকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়কালে মো. আবিদ ওয়াসিফ প্রকাশ এ্যানি (২১) ও মো. নুর হোসেন প্রকাশ নুরু (২১) নামে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ৮ জুলাই কর্ণফুলীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এক নৈশ প্রহরীকে খুনের ঘটনায় তার ভাতিজা নকিবুল হক সৌরভকে (১৯) গ্রেপ্তার করে পিবিআই। ৩০ জুন নগরীর আকবরশাহ থানাধীন বিশ্বকলোনি এলাকায় মহসিন (২৬) নামে এক যুবলীগ কর্মীকে কথিত বড় ভাইয়ের নির্দেশে নির্মমভাবে পিটিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় জড়িত যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাদের বয়স ১৭ থেকে ২০ বছর।
লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম মাসুম ও স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবুল হাসনাত মোহাম্মদ বেলালের অনুসারীরা গত ২৮ জুন রাতে ও ২৯ জুন বিকালে দুই দফায় সংঘর্ষে জড়ায়। এ ঘটনায় জড়িত ২৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদের অধিকাংশের বয়স ১৭ থেকে ২১ বছর। এ রকম আরো অনেক ঘটনায় জড়িত কিশোর-তরুণরা।
পুলিশের কাছে তথ্য রয়েছে, সন্ধ্যার পরে নগরীর স্টেশন রোড, বিআরটিসি মোড়, কদমতলী, চকবাজার, মেডিকেল হোস্টেল, শিল্পকলা একাডেমি, সিআরবি, খুলশি, ফয়’স লেক, ঢেবারপার, চান্দগাঁও শমসের পাড়া, ফরিদের পাড়া, আগ্রাবাদ সিজিএস কলোনি, সিডিএ, ছোটপুল, হালিশহর, বন্দর কলোনি ও পতেঙ্গার বেশ কয়েকটি এলাকায় মাদক বেচাকেনাসহ মোটরসাইকেল ও সাইকেল ছিনতাই, গান-বাজনা, খেলার মাঠ, ডান্স ও ডিজে পার্টি, ক্লাবের আড্ডাসহ বেশ কিছু বিষয় নিয়ন্ত্রণে মরিয়া কিশোর গ্যাং চক্র।

x