অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে প্রথম হ্যাটট্রিক বাংলাদেশের রকিবুলের স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে সুপার লিগের পথে টাইগার যুবারা

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বুধবার , ২২ জানুয়ারি, ২০২০ at ১২:০০ অপরাহ্ণ
42

প্রথমবারের মত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে দক্ষিণ আফ্রিকা গেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। যুবাদের এই বিশ্ব আসরে জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে দিয়ে শুরুটা দারুণ করেছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। দ্বিতীয় ম্যাচে আরো ক্ষুরধার আকবর আলির দল। বিশেষ করে বোলাররা ছিল দুর্দান্ত। আর তাদেরই অসাধারণ বোলিংয়ে এবার স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশের যুবারা। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের এবারের আসরের প্রথম হ্যাটট্রিক করার কৃতিত্ব দেখাল বাংলাদেশের স্পিনার রকিবুল হাসান। আর তাতেই স্কটল্যান্ডের যুবারা পারেনি বাংলাদেশের সামনে বড় কোন লক্ষ্য দাঁড় করাতে। আর যা দাঁড় করিয়েছিল সেটা টপকাতেও মোটেও বেগ পেতে হয়নি টাইগার যুবাদের। যদিও শুরুটা করেছিল নতুন বলের দুই পেসার। আর তাদের পথ ধরে দারুণ ভাবে হেটে গেলেন স্পিনার রকিবুল হাসান। আর তাতেই হলো বাজিমাত। যুব বিশ্বকাপের এবারের আসরের প্রথম হ্যাটট্রিকে রকিবুল গুঁড়িয়ে দিল স্কটল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে। জবাবে টাইগারদের টপ অর্ডার খুব একটা ভালো না করলেও সহজ জয়ই পেয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। টানা দ্বিতীয় জয়ে এগিয়ে গেল সুপার লিগের পথে। গতকাল দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে অনুষ্ঠিত ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে বাংলাদেশ ৭ উইকেটে হারিয়েছে স্কটল্যান্ডকে। ৯০ রানের লক্ষ্য পেরিয়ে গেছে টাইগার যুবারা ২০০ বল হাতে রেখে ।
টস জিতে ব্যাট করতে নামা স্কটল্যান্ডকে শুরুতেই চেপে ধরে বাংলাদেশ দলের দুই পেসার শরিফুল ইসলাম ও তানজিম হাসান। ইনিংসের অষ্টম ২১ রানেই ফিরে যায় দলটির প্রথম চার ব্যাটসম্যান। এরপর মিডল অর্ডারে খানিকটা প্রতিরোধ গড়েন উজাইর শাহ। কিন্তু একপ্রান্ত ধরে রাখা ছাড়া আর কোন উপাই ছিল না তার। কারণ অপর প্রান্তে রকিকবুলের ঘূর্ণিতে আসা যাওয়ার মিছিলে ছিল বাকিরা। পরের ব্যাটসম্যানদের উইকেটে টিকতেই দেননি রকিবুল। নিজের চতুর্থ ওভারে শিকার শুরু করেন রকিবুল প্রতিপক্ষ কেস সাজ্জাদকে বোল্ড করে। পরের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে ফেরান লিলি রবার্টসনকে। চার্লি পিটকে বোল্ড করে বাংলাদেশের তৃতীয় বোলার হিসেবে যুব ওয়ানডেতে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন রকিবুল। পরে জেমি কেয়ার্নসকে থামিয়ে ৩০ ওভার ৩ বলে গুটিয়ে দেন স্কটল্যান্ডের ইনিংস। স্কটিশ যুবারা থামে ৮৯ রানে। দলটির তিনজন ব্যাটসম্যান কেবল দুই অংকের ঘরে যেতে পেরেছে। তারা হলেন গাই ১১, উজাইর ২৮ এবং জেমি কেয়ার্নস ১৭। বাংলাদেশের পক্ষে ২০ রানে হ্যাটট্রিক সহ ৪ উইকেট নেন রকিবুল হাসান। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন যথাক্রমে শরীফুল ইসলাম এবং তানজীম হাসান সাকিব। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী এবং শামীম হাসান।
মাত্র ৯০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় বাংলাদেশ। শন ফিশার-কিওফের প্রথম বলে কট বিহাইন্ড হয়ে ফিরেন তানজিদ হাসান। এরপর পারভেজ এবং শামীম মিলে ১৮ রানের বেশি যোগ করতে পারেনি। ৯ বলে ২টি চারের সাহায্যে ১০ রান করে ফিশার-কিওফের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন শামীম হোসেন। তবে অন্য প্রান্তে দ্রুত রান তোলার চেষ্টায় ছিলেন পারভেজ হোসেন। কিন্তু তিনিও ফিরেন ফিশার-কিওফের বলে। ১৫ বলে দুটি করে ছক্কা ও চারের সাহায্যে ২৫ রান করে ফিরে এই ওপেনার। এরপর তৌহিদ হৃদয়কে নিয়ে বাকি কাজটা সারেন মাহমুদুল হাসান। ৪৮ বলে চার বাউন্ডারিতে ৩৫ রান করেন মাহমুদুল হাসান। হৃদয় সাবধানী ব্যাটিংয়ে করেন ১৭ রান। তার ২৭ বলের ইনিংসটিতে ছিল একটি চারের মার। স্কটল্যান্ড যুবাদের পক্ষে ৩টি উইকেই নিয়েছেন ফিশার-কিওফ। ম্যাচ সেরা হয়েছেন বাংলাদেশের হ্যাটট্রিকম্যান রকিবুল হাসান। এই জয়ের ফলে ৪ পয়েন্ট নিয়ে ‘সি’ গ্রুপের শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আগামী শুক্রবার পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে আকবর আলির দল।