৭৭-এ অমিতাভ বচ্চন

শনিবার , ১২ অক্টোবর, ২০১৯ at ৪:৩২ পূর্বাহ্ণ
50

বলিউড সিনেমার জীবন্ত কিংবদন্তি অমিতাভ বচ্চন। একে একে জীবনের ৭৬টি বসন্ত কাটিয়ে গতকাল শুক্রবার ৭৭ বছরে পা দিলেন এ মেগাস্টার। ১৯৪২ সালে ভারতের উত্তর প্রদেশের এলাহাবাদে হিন্দু-শিখ পরিবারে অমিতাভ বচ্চনের জন্ম। তার বাবা হিন্দি কাব্যসাহিত্যের এক বিশিষ্ট ব্যক্তি হরিবংশ রাই বচ্চন এবং মা তেজি বচ্চন। হিন্দি সিনেমার ইতিহাসে অন্যতম সেরা এ তারকা ১৯৬৯ সালে খাজা আহমেদ আব্বাস পরিচালিত ‘সাত হিন্দুস্তানি’ সিনেমার মধ্য দিয়ে অভিনয় জীবন শুরু করেন। এতে সাত জন নায়কের একজন ছিলেন অমিতাভ। প্রথম সিনেমাতেই সেরা নবাগত হিসেবে ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন তিনি। সেই যে শুরু, এখনো ক্লান্তিহীনভাবে কাজ করে যাচ্ছেন ‘বিগ বি’। খবর বাংলানিউজের।
১৯৭১ সালে রাজেশ খান্নার সঙ্গে সহ-অভিনেতা হিসেবে ‘আনন্দ’ সিনেমায় অভিনয় করেন অমিতাভ। এ সিনেমাটির জন্য তিনি ফিল্ম ফেয়ার পুরস্কার পান। এর এক বছর পর ‘পরওয়ানা’ সিনেমায় প্রথমবার নেতিবাচক চরিত্রে আত্মপ্রকাশ ঘটে তার। ১৯৭৩ সালে পুলিশ চরিত্রে ‘জানজির’ সিনেমায় অভিনয় করেন অমিতাভ। এরপর একই বছর অভিনেত্রী জয়া ভাদুড়ির সঙ্গে ঘর বাঁধেন তিনি। তারা দু’জন জুটি বেঁধে বেশকিছু সিনেমায় অভিনয় করেন। তাদের দুই সন্তান শ্বেতা নন্দা এবং অভিষেক বচ্চন। অভিষেকও পেশায় অভিনেতা এবং তার স্ত্রী অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। অভিনয় থেকে সাময়িক বিরতি নিয়ে রাজনীতিতেও যোগ দিয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। ১৯৮৪ সালে পারিবারিক বন্ধু রাজীব গান্ধীর সমর্থনে এলাহাবাদে লোকসভা নির্বাচনে অংশ নেন তিনি। ভারতের উত্তর প্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এইচ এন বহুগুনার বিরুদ্ধে নির্বাচনে দাঁড়ান এবং সাধারণ নির্বাচনের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ভোট পার্থক্যে জয়লাভ করেন তিনি। তবে তিন বছর পর রাজনীতিকে ‘নর্দমা’ আখ্যা দিয়ে পদত্যাগ করেন তিনি। এরপর আর তাকে রাজনীতিতে দেখা যায়নি। ১৯৮৮ সালে আবারও অভিনয়ে ফেরেন অমিতাভ। অমিতাভ বচ্চন ক্যারিয়ারের শুরু থেকে ক্রমাগত ভারতীয় চলচ্চিত্রকে সমৃদ্ধ করেছেন তার অসাধারণ অভিনয় শৈলী দিয়ে। তার অভিনীত ব্যবসাসফল সিনেমার দীর্ঘ তালিকায় রয়েছে ‘জানজির’, ‘শোলে’, ‘অভিমান’, ‘কুলি’, ‘ডন’, ‘সিলসিলা’, ‘মুহাব্বতান’, ‘ভগবান’, ‘সরকার’, ‘কাভি খুশি কাভি গাম’, ‘ব্ল্যাক’ ও ‘পা’সহ অসংখ্য সিনেমা। ৫০ বছরের ক্যারিয়ারে প্রায় দুইশ’রও বেশি সিনেমায় অভিনয় ‘শাহেনশাহ’।
অভিনেতা ছাড়াও অমিতাভ বচ্চন একজন প্রযোজক, টেলিভিশন উপস্থাপক ও কণ্ঠশিল্পী। সর্বশেষ দক্ষিণী সিনেমা ‘সাই রা নরসিংহ রেড্ডি’ দিয়ে বড় পর্দায় দেখা যায় অমিতাভ বচ্চনকে। ২ অক্টোবর মুক্তিপ্রাপ্ত তেলেগু সিনেমাটিতে একজন বীরযোদ্ধার কাহিনী তুলে ধরা হয়েছে যার সম্পর্কে নতুন প্রজন্ম তেমন কিছুই জানেনা। অথচ তিনিই ছিলেন অগ্রজ বীরসেনা যিনি ব্রিটিশ শাসনের বিরুদ্ধে প্রথম সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধ করেছিলেন। এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন চিরঞ্জীবী।

x