৪র্থ চিটাগং শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০১৯

বৃহস্পতিবার , ৮ নভেম্বর, ২০১৮ at ৮:১২ পূর্বাহ্ণ
17

৪র্থ চিটাগং শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০১৯ এর প্রতিযোগিতা বিভাগের ‘অফিশিয়াল সিলেকশন’ প্রকাশিত হয়েছে। দেশ বিদেশ থেকে জমা পড়া শতাধিক চলচ্চিত্র থেকে প্রদর্শনীর জন্য নির্বাচিত ২০টি চলচ্চিত্রের তালিকা গতকাল চিটাগং শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের ফেসবুক পেজে পোস্ট করা হয়। তরুণ চলচ্চিত্রকারদের সংগঠন ‘চিটাগং শর্ট’ ও বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত এ ফেস্টিভ্যালের ৪র্থ সংস্করণে এবছর ১লা জুন থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট ৪ মাসে প্রায় ৩০ টিরও বেশী দেশ থেকে শতাধিক চলচ্চিত্র জমা পড়ে। ‘সিলেকশন’ প্রক্রিয়াকে আরো নিখাদ রাখতে একই সাথে চলতে থাকে চলচ্চিত্র বিচারকার্য। ১লা অক্টোবর থেকে চলচ্চিত্র বিশেষজ্ঞ ও চলচ্চিত্রকারদের দ্বারা গঠিত নির্বাচন কমিটি পুরোদমে নির্বাচনকার্য সম্পাদন করার পর গতকাল পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করে।
এ বিষয়ে চিটাগং শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের উৎসব পরিচালক শারাফাত আলী শওকত বলেন, অফিশিয়াল সিলেকশন নির্ধারণের ক্ষেত্রে চিটাগং শর্ট সবসময় পরিচালকের দৃষ্টিকোণ থেকে বিচার করে। প্রোডাকশন মূল্যমান, পরিচালকের এস্টিমেটেড গোল এবং তার এক্সিকিউশন, বাজেট, পারফরম্যান্স এ সব দিক বিবেচনা করেই একটা চলচ্চিত্রকে মূল্যায়ন করা হয়।
এবার অফিশিয়াল সিলেকশনে বাংলাদেশ ছাড়াও ছয়টি দেশের চলচ্চিত্র স্থান পেয়েছে। বাংলাদেশ থেকে মেহেদী হাসান রানার ‘জলকাব্য’, গোলাম রব্বানীর ‘কালার অফ লাইফ’, অঙ্কন আদিত্য আচার্য্যর ‘ঘুড়ি’, সাইফুল আলম বাপ্পীর ‘পুতুল’, রুদ্রনীল আহমেদের ‘অর্ঘ্য’, রানা মাসুদের ‘নিবাস’, শাওলিন শাওনের ‘জয়া’ ও রাফাত জামিলের ‘দ্য মোন’ স্থান পেয়েছে। এছাড়া বিদেশী চলচ্চিত্রকারদের মধ্যে প্রেম সিংয়ের ‘কত্রন’ (ভারত); মার্কাস হানিশের ‘লাইব্যাসব্রিফ’ (জার্মানি); ইয়াশবর্ধন মিত্রের ‘দ্য মার্কেট’ (ভারত); মার্টিন টাইডির ‘ফিউজিটিভ’ (ইন্দোনেশিয়া); তথাগত ঘোষের ‘দ্য ডেমন’ (ভারত), বিনয় জাইসওয়ালের ‘দ্য রকস্টার’ (ভারত); মেহমেত তিগুর ‘এ ফেরি টেল’ (তুরস্ক); অলিভিয়ার ম্যগিস ও ফেডরিক ডি বিউলের ‘মে ডে’ (বেলজিয়াম); রাহুল শ্রীবাস্তবের ‘ইতওয়ার’ (ভারত); ক্রিস্টোফার গ্রব ও রেবেকা ক্লিট্‌জকির ‘হার্ড অন ফোর : দ্য ডাবিংকমেডি’ (জার্মানি); ধ্রুব ত্রিপতির ‘১০*১০ফিট’ (ভারত) এবং সেবাস্তিয়ান মার্কেজের ‘দ্য ট্রি এন্ড দ্য পাইরোগ’ (ফ্রান্স) অফিশিয়াল সিলেকশন হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়, স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সংবাদপত্র দৈনিক আজাদী ও প্রযোজনা সংস্থা নকশা’র সার্বিক সহযোগিতায় আয়োজিত এ উৎসবের মূল আয়োজন শুরু হবে আগামী জানুয়ারি মাসেই। দেশের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রকারদের অন্যতম বড় এ মিলনমেলায় দেশের বিখ্যাত চলচ্চিত্রকার এবং চলচ্চিত্রবোদ্ধারা ছাড়াও উপস্থিত থাকবেন নির্বাচিত বিদেশী চলচ্চিত্রের পরিচালকেরাও। ১ মাসব্যাপী এ আয়োজনে চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, মাস্টারক্লাস, সেমিনার, পুরস্কার বিতরণীসহ আরো অনেক আয়োজন থাকবে বলে উৎসব কর্তৃপক্ষ থেকে জানানো হয়। বিস্তারিত জানতে চিটাগং শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের ফেসবুক পেজ: facebook.com/cs.filmfestival

Advertisement