১২ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অবকাঠামোগত উন্নয়নে চসিকের পরিকল্পনা

আজাদী প্রতিবেদন

শনিবার , ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ at ৬:৩২ পূর্বাহ্ণ
31

১২ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অবকাঠামোগত উন্নয়নে পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন। এ লক্ষ্যে একটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এতে সহায়তা করবে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অত্যাধুনিক শ্রেণিকক্ষ, শিক্ষার্থীদের সুপরিসর কমন রুম, মাল্টিমিডিয়া ক্লাস সিস্টেম, শিক্ষকদের স্বতন্ত্র কক্ষসহ নানাবিধ সুযোগসুবিধার ব্যবস্থা থাকবে। এর মধ্য দিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শ্রেণি কক্ষ সংকট নিরসন ও আসন সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। প্রতিটি ভবন হবে ৬ তলা বিশিষ্ট।

গত বৃহস্পতিবার নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে সিটি কর্পোরেশন কায়সার নিলুফার কলেজ পরিচালনা পর্ষদ সভায় মেয়র আ..ম নাছির উদ্দীন এ তথ্য জানান।

যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অবকাঠামোগত উন্নয়ন পরিকল্পনা রয়েছে সেগুলো হচ্ছে, পাথরঘাটা মেনকা সিটি কর্পোরেশন উচ্চ বিদ্যালয়, কৃষ্ণকুমারী সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কুসুম কুমারী সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, পূর্ব বাকলিয়া সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কাপাসগোলা সিটি কর্পোরেশন মহিলা কলেজ, গুলজার বেগম সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, আলকরণ সুলতান আহম্মদ সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বলুয়ার দীঘি সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, লামাবাজার সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, পূর্ব বাকলিয়া সিটি কর্পোরেশন উচ্চ বিদ্যালয়, উর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ অপর্ণাচরণ সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, চর চাক্তাই সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় রয়েছে।

এদিকে সভাপতির বক্তব্যে সিটি মেয়র আরো বলেন, শিক্ষা অতীত সংস্কৃতির বাহক। বর্তমান সভ্যতা পৃষ্ঠপোষক এবং ভবিষ্যৎ প্রগতির ধারক। মানুষের ভিতরে যে সুপ্ত প্রতিভা, সম্ভাবনা লুকিয়ে থাকে তা শক্তিতে রূপান্তরের মাধ্যম হচ্ছে শিক্ষা। বহুকাল পূর্ব থেকে এ শিক্ষা ব্যবস্থা চলমান ছিল। বর্তমানে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ২ কলেজে অনার্স কোর্সসহ মোট ৮টি ডিগ্রি কলেজ, ১৩টি উচ্চ মাধ্যমিক কলেজ, ৪৭টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৭টি কিন্ডার গার্টেন, ২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১টি কম্পিউটার ইনস্টিটিউট পরিচালনা করছে।

মেয়র বলেন, শুধুমাত্র এ শিক্ষা খাতে বছরে ৪৩ কোটি টাকা ভর্তুকি দিয়ে যাচ্ছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন। তিনি বলেন, এটা সিটি কর্পোরেশনের মূল দায়িত্ব নয়, তারপরও নগরবাসীর চাহিদা পূরণের জন্য চসিক এই গুরুদায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। চসিক পরিচালিত এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বর্তমানে প্রায় ৭০ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে। সভায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কায়সার নিলুফার কলেজের একাডেমিক স্বীকৃতি অর্জিত হওয়ায় কলেজ পর্ষদের সদস্যবৃন্দ মেয়রকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। সভায় আয়ব্যয়, ছাত্রছাত্রী ভর্তি, কলেজের অভ্যন্তরীণ খরচ, একাদশ, দ্বাদশ শ্রেণির ভর্তি ফি, বেতন, কলেজ বিবিধ আয় প্রিমিয়ার ব্যাংক খাতুনগঞ্জ শাখায় অটো ট্রান্সফারসহ বিবিধ বিষয়ে আলোচনান্তে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। এ সময় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ২০নং দেওয়ানবাজার ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার আলহাজ্ব পেয়ার মোহাম্মদ, সচিব মো. আবুল হোসেন, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল মহিউদ্দিন আহমেদ, নবাগত প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া, কায়সার নিলফার কলেজের অধ্যক্ষ ওমর ফারুক, নির্বাহী প্রকৌশলী সুদীপ বসাক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পরে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন কদম মোবারক এম ওয়াই উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সাথে এক বৈঠকে মিলিত হন। এ সময় সদস্য সচিব প্রধান শিক্ষক মো. আবু জহুর, শিক্ষক প্রতিনিধি সাহেদা বেগম, জাহাঙ্গীর আলম, অভিভাবক প্রতিনিধি মৃনাল বাড়ৈ, পলি মল্লিক ও মহিলা অভিভাবক প্রতিনিধি মুক্তি রায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

x