হোসাইন কবির-এর কবিতা

শুক্রবার , ৩১ মে, ২০১৯ at ৭:০৯ পূর্বাহ্ণ
12

হাঁটছে কফিন আগুনে পোড়া কঙ্কাল

গ্রামে-গঞ্জে সদর রাস্তায় অলিতে-গলিতে
হাঁটছে কফিন আগুনে পোড়া কঙ্কাল
মুখোমুখি তোমার আমার

মানচিত্রে রক্তের দাগ পোড়ার ক্ষত
দ্বেষ-বিদ্বেষ ধর্মান্ধ সময়ের
সদর রাস্তায় বাড়ি-ঘর বসত-ভিটায়
হাঁটছে কফিন আগুনে পোড়া কঙ্কাল

ত্রিশূল আর কালো এক পাথরের
গগনবিদারী উলঙ্গ উন্মত্ততায়
হাঁটছে কফিন খণ্ডবিখণ্ড অবয়বে
উল্কিত সাতচল্লিশে
রক্তের বদলা, খুন আর ধর্ষণে
আগুন আগুন খেলায়

আজো লেলিহান শিখায় পুড়ছে
দেশ কাল মাটি মাটির শরীর
মানুষ পুড়ছে আজও সমগ্র মানচিত্রে
মানুষ পুড়ছে জলেস্থলে অন্তরীক্ষে
আহা মানুষ!
যে যার আগুনে পুড়লো
যে যার চোখের জলে ডুবলো
প্রেম অপ্রেম

নদীতে জল
আজও কতটা বহমান?
আকাশ নীলে
ক্ষতবিক্ষত পাঁজরে
সাগরে নদীতে ভাসছে কার প্রতিবিম্ব –
বেদনায় নীল – অবিকল তাহার গড়ন!

আকাশে নদীর ছায়া দীর্ঘতর হয়
যতটা দূরে আছি ঠিক তারই সমান
শুয়ে থাকে সমান্তরাল

দূরত্ব বাড়ছে, বাড়ুক, অনন্ত মৃত্যুর পথরেখায়

নুসরাতনামা

‘জীবিতকে মৃতের মাঝে কেন খুঁজতে যাওয়া’!
সকল মৃত্যু সে তো এক নয়
কোন কোন মৃত্যু জীবনেরই উজ্জ্বলতম স্বাক্ষর

সবটুকু লালে কিংবা সবটুকু সাদায় আজ শোকের ছায়া
শোক হোক শক্তির প্রতীক সোচ্চার উচ্চারণে

সকল মৃত্যু সে তো এক নয়
কোন কোন মৃত্যু জীবনেরই উজ্জ্বলতম স্বাক্ষর
লড়াইয়ের প্রতিবাদের অনির্বান শিখা
আকাশে বাতাসে শত সহস্র কণ্ঠের উচ্চারণ

‘জীবিতকে মৃতের মাঝে কেন খুঁজতে যাওয়া’!
কোন কোন মৃত্যু লক্ষ কোটি প্রাণে
জীবনের কথা বলে
সত্য ও ন্যায়ের কথা বলে
তাইতো বলি ু
নুসরাত পোড়েনি! মরেও-নি!
দাউদাউ অগ্নিশিখায়
পুড়ছি
পোড়াচ্ছি
পুড়ছে প্রিয় স্বদেশ বাংলাদেশ

ব্ল্যাক আইচ

ব্যান্ডেজ হাতে নয় পায়ে নয়
এমনকি শরীরের কোথাও নয়
তবু অদ্ভুত অদৃশ্য কালো এক ব্যান্ডেজ জড়িয়ে
চুপচাপ হাঁটছে সবাই
ব্যান্ডেজ হাতে নয় পায়ে নয় কোথাও নয়
তবু ব্ল্যাক আইচে থমকে আছে সময়ের চাকা তন্ত্রমন্ত্র যাবতীয় আয়োজন

x