(হালিশহরের জনজীবন বিপন্ন হয়ে পড়েছে)

মুহাম্মদ বাবুল হক বাবর

বৃহস্পতিবার , ১১ জুলাই, ২০১৯ at ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ
111

পানিবন্দি হালিশহরবাসীর জীবন এখন বিপন্ন হয়ে পড়েছে।প্রচন্ড গরমের পর হঠাৎ একটানা বৃষ্টির কারণে এলাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক, অলিগলি, বসতবাড়ি, দোকানপাঠ, স্কুল-কলেজ, মসজিদ, মন্দির সবকিছু পানিতে সয়লাব হয়ে যায়।
সরজমিনে গিয়ে দেখাযায় বঙ্গোপসাগরের উপকূলবর্তী দক্ষিণ মধ্য হালিশহর,হালিশহর মুনিরনগরস্থ হিন্দুপাড়া, ১নং সাইট,চান্দারপাড়া, দিঘীর পাড়া, নতুনপাড়া, ধোপাপাড়া, জেলেপাড়া, বিল্লাপাড়া মুন্সীপাড়া, ভেন্ডা চৌধুরীপাড়া, ঘাসী মাঝিরপাড়া, আনন্দবাজার, জাফরখানপাড়া, চৌচালা, আদর্শপাড়া সহ তার আশপাশের অনেক এলাকা এখনও পানির নিচে। অনেক পরিবারে রান্নাঘর পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় পরিবার পরিজন নিয়ে শুকনো খাবার খেয়ে জীবন অতিবাহিত করতে হচ্ছে।
অনেক পরিবার হয়ে পড়েছে আশ্রয়হীন। এলাকার স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা সমূহে ছাত্রছাত্রীদের উপস্থিতি ছিল একেবারে নগন্য।ক্লাসরুমে ঢুকে পড়ে নালা নর্দমার ময়লাযুক্ত কালো পানি।এখানকার পানিবন্দি মানুষের হাহাকার স্বচক্ষে না দেখলে বিশ্বাস হবে না তারা কতটা অসহায়।
চরম অভিভাবকহীনতায় ভুগছে এলাকার জনগণ। এখানে বসবাসরত বিশিষ্টজনরা বলছেন, নগরীর উন্নয়নে কোন সমন্বয় নেই। নেই কোন মাস্টার প্ল্যান। পরিকল্পিত উন্নয়নের অভাবে আজকের এই নাজুক পরিস্থিতি।এক শ্রেণির মানুষের সচেতনতার অভাবকেও অনেকে দায়ী করেছেন। প্রতিটি এলাকার সর্বস্তরের জনগণ এই ব্যাপারে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে আসলে সমস্যা অনেকটা কমতো।
সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সহ এলাকার দায়িত্বশীল ব্যক্তিবর্গ ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার জনগণের দুঃখ লাঘবে তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণ করে এগিয়ে আসা প্রয়োজন তা না হলে হালিশহরের জনজীবন আরও বিপর্যস্ত হয়ে পড়বে।

x