হার না মানা হাবিবের পাশে তথ্যমন্ত্রী

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

রবিবার , ১৪ এপ্রিল, ২০১৯ at ৮:০৯ পূর্বাহ্ণ
98

এক হাত পুরো নেই। অন্য হাত কনুই পর্যন্ত। এমন শারীরিক পরিস্থিতির মধ্যেও থেমে নেই রাঙ্গুনিয়ার মেধাবী হাবিবুর রহমান। প্রাথমিক, জুনিয়র ও মাধ্যমিক পেরিয়ে এবার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছেন হাবিব। তবুও অদম্য সে। অন্য স্বাভাবিক পরীক্ষার্থীদের মতোই পরীক্ষা দিচ্ছে হার না মানা হাবিব। রাঙ্গুনিয়া উপজেলার দক্ষিণ রাজানগর ইউনিয়নের দক্ষিণ নিশ্চিন্তপুর গ্রামের অটোরিকশাচালক রমজান আলী ও রাশেদা বেগম দম্পতির সন্তান হাবিবুর রহমান। দরিদ্র পরিবারের সন্তান হাবিবের পাশে দাঁড়িয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।
গতকাল শনিবার হাবিব ও তার বাবার হাতে ৫০ হাজার টাকা তুলে দিয়ে পড়ালেখা চালিয়ে যেতে উৎসাহ যুগিয়েছেন। আশ্বাস দিয়েছেন তার পড়ালেখা চালাতে যাতে সমস্যা না হয় সেই উদ্যোগ নেয়া হবে। দুটি হাত না থাকার পরও এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়া রাঙ্গুনিয়ার হাবিবকে নিয়ে গত ৪ এপ্রিল দৈনিক আজাদীতে সচিত্র প্রতিবেদন ছাপা হলে বিষয়টি নজরে আসে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদের।
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, স্বাভাবিক থাকলেও অনেক শিক্ষার্থী উচ্চ মাধ্যমিকের গণ্ডি পার হতে পারে না। হাবিব তাদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে অদম্য ইচ্ছা থাকলে সফল হওয়া যায়। সমাজে ভিন্ন ভাবে সক্ষম এসব মানুষের পাশে দাঁড়ানো সবারই দায়িত্ব।
হাবিবের বাবা রমজান আলী তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, বয়স যখন পাঁচ বছর, তখন রাঙ্গুনিয়া থেকে খাগড়াছড়িতে বেড়াতে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় হাবিবের একটি হাত সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় ও অন্যটি থেঁতলে যায়। থেঁতলে যাওয়ার কারণে এক হাতের কনুই পর্যন্ত কেটে ফেলতে হয়। তার দুই হাত না থাকলেও ছোটবেলা থেকে সে সবকিছু নিজে করার চেষ্টা করত। এখন অন্য স্বাভাবিক ছেলেমেয়েদের মতো সেও নিয়মিত কলেজে যায়, কম্পিউটার ব্যবহার করে, মুঠোফোন চালায়, নিজ হাতে খাওয়া, এমনকি ক্রিকেট-ফুটবলসহ শারীরিক কসরতপূর্ণ খেলাধুলায় নৈপুণ্য দেখায়।
হাবিব জানায়, লিখতে একটু অসুবিধা হয়। তবুও এগিয়ে যেতে চায় সে। মা-বাবা, শিক্ষক ও সবার আন্তরিক সহযোগিতায় সে এতদূর এসেছে। কারও বোঝা হয়ে না থেকে সে নিজের পায়ে দাঁড়াতে চায়। ভবিষ্যতে সে প্রকৌশলী হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। তার পাশে দাঁড়ানোয় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের প্রতি।
বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এবার এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে হাবিব। এসএসসিতে ৪ দশমিক ৮৬ পেয়ে রাঙ্গুনিয়া সরকারি কলেজে ভর্তি হয়েছিল। প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় জিপিএ-৫ ও ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি এবং জেএসসি পরীক্ষায় ৪ দশমিক ৬৭ পায়। তাকে উপবৃত্তিসহ সব সুযোগ-সুবিধা কলেজ কর্তৃপক্ষ দিয়েছে।

x