হাত-চোখ বেঁধে ছেড়ে দেওয়া হলো অপহৃত ব্যবসায়ীকে

সাতকানিয়া প্রতিনিধি

মঙ্গলবার , ৭ মে, ২০১৯ at ৫:৫৩ পূর্বাহ্ণ
413

সাতকানিয়া থেকে অপহৃত ব্যবসায়ী মোস্তাক আহমদকেও ছেড়ে দিয়েছে অপহরণকারীরা। অপহরণের দেড় ঘন্টা পর ছেলেকে এবং ২৯ ঘন্টা পর বাবাকে ছেড়ে দিয়েছে তারা।
সাতকানিয়ার সোনাকানিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের জমাদার পাড়ার মৃত আঙ্গর মিয়ার ছেলে মির্জারখীল বাংলা বাজারের ব্যবসায়ী মোস্তাক আহমদ ও তার ছেলে মির্জারখীল উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র মো. আকিব উল্লাহকে গত শনিবার রাতে দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে তাঁতী পাড়ার ইমাম উদ্দিনের টেক নামক স্থান থেকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে অপহরণ করেছিল মুখোশধারী সন্ত্রাসীরা।
পুলিশ জানান, মির্জারখীল বাংলা বাজারের ভাই ভাই শপিং মল ও ভাই ভাই ক্লথ স্টোরের মালিক মোস্তক আহমদ গত শনিবার রাতে ছেলে আকিবকে সাথে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে ঘরে ফিরছিলেন। এসময় রাত সাড়ে ১০টার দিকে সোনাকানিয়ার তাঁতী পাড়া ইমাম উদ্দিনের টেক থেকে মুখোশধারী সন্ত্রাসীরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বাবা-ছেলেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। দেড় ঘন্টা পর ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার দূরে উত্তর হাতিয়ারকূল ছিদ্দিকিয়া মহিলা মাদ্রাসা এলাকায় একটি রাস্তার উপর নিয়ে গিয়ে আকিব উল্লাহকে ছেড়ে দেয় অপহরণকারীরা।
পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ১০ রাউন্ট কার্তুজ, ১টি রেইনকোট, অপহৃতের ২টি মোবাইল সেট ও মোটরসাইকেল উদ্ধার করে। এরপর অপহৃত ব্যবসায়ীকে উদ্ধার ও অপহরণকারীদেরকে গ্রেপ্তারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। এ ঘটনায় অপহৃত ব্যবসায়ী মোস্তাক আহমদের শ্যালক রেজাউল করিম বাদি হয়ে গত রবিবার সাতকানিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অপহৃতকে উদ্ধারের জন্য অভিযান অব্যাহত রাখে। এরই মধ্যে গত রবিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে অপহৃত ব্যবসায়ী মোস্তাক আহমদকে হাত ও চোখ বাঁধা অবস্থায় সাতকানিয়া সদর ইউনিয়নের রূপকানিয়া ছড়ারকূল নামক এলাকায় একটি বাগানে ছেড়ে দেয়। পরে অপহৃত মোস্তাক আহমদ কৌশলে হাত ও চোখে বাঁধন খুলে পার্শ্ববর্তী একটি বাড়িতে আশ্রয় নেয়। এরপর ওই বাড়ির লোকজন সিএনজি ট্যাঙিযোগে তার বাড়িতে পৌঁছে দেয়। এদিকে, এ ঘটনায় আটককৃত সোনাকানিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের দয়ার পাড়া এলাকার মৃত ইমাম উদ্দিনের ছেলে মো. বেলাল উদ্দিন (৩৫) ও একই ইউনিয়নের ডিলার পাড়ার মৃত বদন আলীর ছেলে মো. মোরশেদ (৩০) কে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রেখেছে। সাতকানিয়া থানার ওসি মো. সফিউল কবির জানান, অপহরণের সংবাদ পাওয়ার পর থেকে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান শুরু করে। ঘটনার দিন রাতে সন্দেহভাজন দুইজনকে আটক করি। আটকের পর থেকে তাদেরকে পুলিশ ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। অপহৃত ব্যবসায়ীকে উদ্ধার ও অপহরণকারীদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ রবিবার সারাদিন এবং রাতেও বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রাখে। একই সাথে আমরা বাঁশখালী ও লোহাগাড়া থানা পুলিশের সহযোগিতা নিই। ফলে অপহরণকারীরা ব্যবসায়ী মোস্তাক আহমদকে সাতকানিয়ার বাইরে কোথাও নেয়ার সুযোগ পায়নি। পুলিশের ব্যাপক তৎপরতার কারনে অপহরণকারীরা মোস্তাককে ছেড়ে দিয়ে বাধ্য হয়েছে। আমরা এখন অপহরণকারীদেরকে চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছি।

x