হাই স্পিড ইন্টারকানেক্টে এগিয়ে যেতে হবে

সিআইইউতে সেমিনার

শুক্রবার , ১১ জানুয়ারি, ২০১৯ at ৪:৪৮ পূর্বাহ্ণ
42

কম্পিউটার, সেলুলার ফোন, সার্ভার কিংবা গেইমিং কনসোল-হাই স্পিড ইন্টারকানেক্টের সঙ্গে এই বিষয়গুলো জড়িয়ে আছে ওতপ্রোতভাবে। তথ্যপ্রযুক্তির ডানা মেলা বর্তমান দুনিয়ায় মানুষের সঙ্গী এখন ইন্টারনেট। সেকেন্ডের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে তাই সবারই চাওয়া নিজেকে আপডেট রাখা।
চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে (সিআইইউতে) ‘হাই স্পিড ইন্টারকানেক্ট: ইন্ট্রোডাকশন অ্যান্ড চ্যালেঞ্জেস’ শীর্ষক সেমিনার গত ৯ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়। জামালখান ক্যাম্পাসের অডিটোরিয়ামে সিআইইউর স্কুল অব সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে শিক্ষার্থীরা ছাড়াও ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন, কানাডার অ্যাডভান্সড মাইক্রো ডিভাইসেস (এএমডি) সেক্টরের সিনিয়র অ্যানালগ ইঞ্জিনিয়ার ড. মোহাম্মদ এরশাদুল কবীর। তিনি বলেন, প্রযুক্তি অনেক দূর এগিয়ে গেছে। কম্পিউটার কিংবা টেলিভিশনের গ্রাফিঙ ইউনিট থেকে ছবি ভেসে উঠছে পর্দায়। দিন যত যাবে ছবি কিংবা শব্দের গতি আরো দ্রুত সময়ের মধ্যে পৌঁছানোর জন্য কৌশল চলে এসেছে। যত কম সময়ের মধ্যে সংকেতগুলোর মাধ্যমে মানুষের কাছে বার্তা পৌঁছানো যায়, ততই মুন্সিয়ানার ছাপ ফুটে উঠবে। তার জন্য আমাদের বিশ্বের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে নিত্য-নতুন সিগন্যাল লাইন তৈরি করতে হবে। হাই স্পিড শাখায় ডিজাইন তৈরি করার মতো বাংলাদেশে অভিজ্ঞ লোকজনের অভাব রয়েছে। দক্ষ ব্যক্তিদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে এই সেক্টরে প্রতিযোগিতায় নামতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে স্কুল অব সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ডিন অধ্যাপক ড. মো. রেজাউল হক খান বলেন, বাংলাদেশে এই বিষয়ে গবেষণার প্রচুর সুযোগ রয়েছে। সব ধরনের সহযোগিতা পেলে নতুনরা হাই স্পিড ইন্টারকানেক্ট সেক্টরে চমক লাগিয়ে দেবে।
সহযোগী অধ্যাপক ড. আসিফ ইকবালের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সহযোগী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রেজাউল করিম, সহকারী অধ্যাপক রাইসুল ইসলাম রাসেল, প্রভাষক রিজয়ানুল আরেফীন নিয়ন, রবিউল হোসাইন, মোরশেদ আলম, হাবীবুর রহমান প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x