স্পেনকে বিদায় করতে চায় স্বাগতিক রাশিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক

শুক্রবার , ২৯ জুন, ২০১৮ at ৬:৪১ পূর্বাহ্ণ
67

বিশ্বকাপের স্বাগতিক হওয়ায় বাছাই পর্ব খেলতে হয়নি তাদের। তাই লম্বা সময় ধরে নিজেদের তৈরি করে নিয়েছে রাশিয়া। যার প্রমাণ তারা মাঠে দিয়েছে গ্রুপ পর্বে। যদিও টুর্নামেন্ট শুরুর আগে র‌্যাঙ্কিংয়ের দিক থেকে সবচেয়ে বাজে দল ছিল রাশিয়া। সবাই ধরেই নিয়েছিল, দক্ষিণ আফ্রিকার পর রাশিয়াই প্রথম স্বাগতিক হিসেবে গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছে। কিন্তু সবার ধারণা ভুল প্রমাণ করে প্রথম ম্যাচেই সৌদি আরবকে ৫০ গোলে উড়িয়ে দেয় স্বাগতিকরা। পরের ম্যাচে মিসরকে হারিয়ে শেষ ষোলও নিশ্চিত করে তারা। শেষ ম্যাচে বড় ব্যবধানে উরুগুয়ের কাছে হারলেও নক আউট পর্বে আর হারতে চায়না স্বাগতিকরা। কারণ এখানে হারা মানে সব শেষ।

বিশ্বকাপের দ্বিতীয় পর্বে স্বাগতিকদের প্রতিপক্ষ স্পেন। আপাতদৃষ্টিতে ২০১০ এর চ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে আন্ডার ডগহিসেবেই নামবে রাশিয়া। তবে স্পেনের বর্তমান ফর্ম খুব একটা সুবিধার নয়। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ষোলতে পা রাখলেও প্রতিটি ম্যাচেই ভুগেছে স্পেন। তার ওপর বিশ্বকাপ শুরুর দুইদিন আগে নতুন কোচ নিয়োগ দেয়ায় দলের অবস্থাও টালমাটাল। এই সুযোগটা কাজে লাগাতে চায় রাশিয়া। বর্তমান রাশিয়ান তারকা ডেনিস চেরিশেভের বাবা সাবেক ফুটবলার দিমিত্রি চেরিশেভ মনে করেন, স্পেনকে হারিয়ে স্বাগতিকরাই কোয়ার্টারে পা রাখবে।

দিমিত্রি চেরিশেভ বলেন, ‘আমি মনে করি, আমরা জিতবো এবং কোয়ার্টার ফাইনালে পা রাখবো। স্পেন বর্তমানে সঙ্কটে আছে। কারণ আমরা বিশ্বকাপ নিজের মাটিতে খেলছি এবং আমাদের জিততে হবে। বিশ্বকাপের দুইদিন আগে কোচ বদল করাটা বাড়াবাড়ি। আমি মনে করি স্প্যানিশরা এটা নিয়ে কিছুটা ভুগছে।’ ছেলে ডেনিসের পারফরম্যান্স নিয়েও ভীষণ খুশি দিমিত্রি। তিনি আশা করছেন, স্পেনের বিপক্ষে গোল পাবে তার ছেলে, ‘ডেনিস পুরোপুরি আত্মবিশ্বাসী। সে এখন খুবই খুশি। স্পেনের বিপক্ষে খেলাটা তার জন্য বিশেষ কিছু হবে। সে স্পেনের বিপক্ষে আরো ভালো খেলবে এবং গোলও করবে। যদিও স্পেনকে নিয়ে অনেকেই অনেক কথা বলছেন, মাঠে কিন্তু তারা বরাবরই সেরাটা দিয়ে সমীহ আদায় করে নেয়। এখন মনে হচ্ছে স্পেনিশদের অবস্থা ততটা ভাল নয়, কিন্তু সঠিক সময়ে ঠিকই তারা জ্বলে উঠে। তাছাড়া অভিজ্ঞ এই দলটি জানে কিভাবে ম্যাচ জিততে হয়। রাশিয়া স্বাগতিক হওয়ায় হয়তো কিছুটা সুবিধা পাবে বলে আশা করা হচ্ছে। কারণু স্টেডিয়াম ভর্তি দর্শক থাকবে তাদের। আর এত দর্শকের সামনে খেলার সুবিধাটা কাজে লাগাতে চাইবে তারা। কিন্তু ভুলে গেলে চলবেনা স্পেন কিন্তু বরাবই লড়াই করে ফিরে এসেছে। তাই যত জটিলতা থাকুকনা কেন রাশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ জেতার প্রত্যয় তাদেরও। হারতে নারাজ স্পেনও। তাই আশা করা হচ্ছে স্বাগতিকদের সাথে সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের লড়াইটা বেশ জমজমাটই হবে।

x