সীতাকুণ্ডে রি-রোলিং মিলে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, দগ্ধ ৩

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

বৃহস্পতিবার , ৮ নভেম্বর, ২০১৮ at ৫:৫২ পূর্বাহ্ণ
282

সীতাকুণ্ডে একটি অটো রি-রোলিং মিলে ভয়াবহ ফার্নেস বয়লার (লোহা তরল করার যন্ত্র) বিস্ফোরণে পাঁচজন শ্রমিক দগ্ধ হয়েছেন। গতকাল বুধবার সকাল ১০টায় কুমিরা মাজার গেট এলাকায় গোল্ডেন ইস্পাত অটো রি-রোলিং মিলে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, বুধবার সকাল ১০টায় কারখানাটিতে হঠাৎ কয়েকটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণে
কারখানার লোহা তরল করার যন্ত্র (ফার্নেস চুলা) ফুটো হয়ে যায়। এসময় ওখানে কর্মরত ৩ জন শ্রমিকের শরীরে তরল লোহা পড়ে। এতে তারা দগ্ধ হন। তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও বেসরকারি আল আমিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মিল কর্তৃপক্ষ তিনজন দগ্ধ হওয়ার কথা বললেও অনুসন্ধানে ৫ জন শ্রমিক দগ্ধ হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
দগ্ধ শ্রমিকরা হলেন, গাইবান্দার কুবতলা গ্রামের আজির উদ্দিনের পুত্র মোহাম্মদ শামীম (২৪)। সন্দ্বীপের কাচিয়াপাড় এলাকার রবিউল হোসেনের ছেলে সোহাগ (২৭) ও নেত্রকোনার আটপাড়া থানার মনছুরপুর গ্রামের আমির উদ্দিনের ছেলে মিজান (৩২)।
স্থানীয়রা জানায়, পরপর তিনবার ভয়াবহ বিস্ফোরণে পুরো এলাকায় মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
নগরীর এ কে খান এলাকাস্থ আল আমিন হাসপাতালের ডাক্তার মোহাম্মদ তুহিন বলেন, গোল্ডেন ইস্পাত অটো রি-রোলিং মিলে তিনজন শ্রমিক দগ্ধ হন। মিজান ও শামীম নামে দুই শ্রমিককে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। একজনকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে তারা কত পারসেন্ট দগ্ধ হয়েছেন তা জানাতে অস্বীকৃতি জানান এই চিকিৎসক।
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন বলেন, গোল্ডেন ইস্পাতে বিস্ফোরণের ঘটনায় সোহাগ নামে এক শ্রমিককে দগ্ধ অবস্থায় এখানে আনা হয়। চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যেতে বলেছেন।
কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাবেক মেয়র মনজুর আলম বলেন, কোন বিস্ফোরণ হয়নি। লোহা তরল করার যন্ত্র (ফার্নেস চুলা) ফুটো হয়ে তরল লোহা বেরিয়ে পড়লে তিনজন শ্রমিক আহত হন।
সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মোহাম্মদ জব্বারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিস্ফোরণের ঘটনায় তিনজন শ্রমিক দগ্ধ হয়েছেন বলে শুনেছেন। তাদের মেডিকেলে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

x