সিবলি সাংস্কৃতিক ফোরাম থেকে জেনেসিস

আহসানুল কবির রিটন

বৃহস্পতিবার , ১৮ জুলাই, ২০১৯ at ৫:২৪ পূর্বাহ্ণ
54

চট্টগ্রামের হেমসেন লেইন এলাকায় তখন সিবলি সাংস্কৃতিক ফোরাম নামে একটি সংগঠন ছিল। সংগঠনের কয়েকজন তরুণ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গণ সংগীতসহ নানাধরনের গান পরিবেশন করতো। পহেলা বৈশাখ, স্বাধীনতা দিবস, ২১ ফেব্রুয়ারিসহ নানা অনুষ্ঠানে তারা গরুগাড়ি কিংবা ভ্যানগাড়িতে চড়ে শহরময় গান পরিবেশন করতো।
তরুনরা সবাই ছিল স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী। নব্বইয়ের দশকে প্রয়াত পপ শিল্পী আজম খান, তপন চৌধুরী, শুভ্র দেব, শাকিলা জাফর, সামিনা চৌধুরী, সদ্য প্রয়াত সাবাতানি, প্রয়াত শেখ ইসতিয়াকসহ এক ঝাঁক প্রখ্যাত কন্ঠশিল্পী দেশের সংগীতাঙ্গনকে মাতিয়ে রাখছিলেন। আর তাঁদের গান দারুণভাবে আকৃষ্ট করে সংগঠনের সদস্য লিডগিটার বাদক কাজল, রানা, মোহাম্মদ নবী, বেস গিটার বাদক রাজু, সুদীপ বড়ুয়া, ড্রামস বাদক লিমন ও অনুপম, ভোকাল দেবাশিষ ধর এবং অভিজিৎকে। তাদের চোখে মুখে ঘোর লেগে যায়।
সিদ্ধান্ত নেন ব্যান্ড দল গড়ার। কয়েকদিনের মধ্যেই কাজল, সুদীপ, অনুপম আর অভিজিৎ শুরু করেন দল গড়ার কাজ। কিন্তু বাধা হয়ে দাঁড়ায় টাকা। আর টাকা যোগাড় করতে দলের সদস্যরা স্টল দেন বিজয়মেলায়।
দলের সদস্য সুদীপদের বাড়িতে ধান চাষ হতো। বছর শেষে বাবার আদেশ অনুযায়ী ধান বিক্রির টাকা আনতে গ্রামে যেতেন তিনি। ব্যান্ডের যন্ত্রপাতি কিনতে অনেক সময় মেরে দিতেন সেই টাকা। আর এ জন্য বাসায় এসে নানা মিথ্যে কথা বলেও শেষ রক্ষা হতো না। জুটতো বকুনি এমনকি কান মলা, কিল থাপ্পড় ইত্যাদি।
দলের অন্য সদস্যরাও লিখিয়েছিলেন ঘরোয়া চোরের খাতায় নাম। কিছুদিন পর তারা শরনাপন্ন হন প্রখ্যাত ব্যান্ডদল এলআরবি’র দলনেতা আয়ুব বাচ্চুর। তারা বাচ্চুর কাছ থেকে সংগ্রহ করেন প্রিভিও মডেলের একটি সাউন্ড বক্স। আর সমর বড়ুয়ার কাছ থেকে কেনেন কনসোল। ঢাকার মেলোডি থেকে নয়হাজার টাকায় কেনেন ড্রামস। আর কাজীর দেউড়ি বাংলা হোটেলে রাতদিন চলতে থাকে প্র্যাকটিস। ১৯৯১ সালের কোন এক সময় চট্টগ্রামের লেডিস ক্লাবে প্রথম অনুষ্ঠান করে জেনেসিস। এটি ছিল একটি বিয়ের অনুষ্ঠান। সেই অনুষ্ঠানটি দলটির জন্য বিশেষ গুরুত্বের। কারণ এটি তাদের যেমন প্রথম অনুষ্ঠান ছিল আর তাদের সাথে সেই মঞ্চেই সংগীত পরিবেশন করেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কন্ঠশিল্পী প্রয়াত প্রবাল চৌধুরী। আর এই অনুষ্ঠানে খুশী হয়ে বিয়ের বর দুইহাজার টাকা সম্মাণী দেন জেনেসিস সদস্যদের। এ ছাড়া রাঙামাটি কলেজের কোন একটি অনুষ্ঠানেও অংশ নেয় এই দল। সবমিলিয়ে ২০/২৫ টি অনুষ্ঠান করে জেনেসিস। অবশ্য পরবর্তীতে নানা কারণে বছর চারেক পরে দলের সব কর্মকান্ড থেমে যায়।

x