সাড়ম্বরে শুরু হচ্ছে শারদীয় দুর্গোৎসব আজ মহাষষ্ঠী

আজাদী ডেস্ক

সোমবার , ১৫ অক্টোবর, ২০১৮ at ৬:৩০ পূর্বাহ্ণ
129

আজ থেকে শুরু হচ্ছে বাঙালি হিন্দু সমপ্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। মণ্ডপে মণ্ডপে গতকাল সায়ংকালে অনুষ্ঠিত হয়েছে দেবীর বোধন। দুর্গোৎসবে আজ মহাষষ্ঠী। ১৯ অক্টোবর শুক্রবার বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে সম্পন্ন হবে পাঁচ দিনব্যাপী এ উৎসব। শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণীতে দেশের হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।
এবার নগরীতে ২৫৫ টি মণ্ডপে দুর্গোৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। অপরদিকে চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলায় ১৮২৫টি মণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। সারা দেশে এবার ৩১ হাজার ২৭২টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। রাজধানী ঢাকাতে পূজা অনুষ্ঠিত হবে ২৩৪ টি মণ্ডপে। গত বছর সারা দেশে ২৯ হাজার ৭৪ টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। নির্বিঘ্নে পূজা অনুষ্ঠানে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।
এবার দেবী আসছেন ঘোটক (ঘোড়ায়)। শাস্ত্রে বলা হয়েছে, এর ফল হবে ‘ছত্রভঙ্গস্তুরঙ্গমে।’ বলা হয়ে থাকে- ঘোটক দ্রুতগামী, চপল, চঞ্চল। তাই দেবীর ঘোড়ায় এই আগমনে সামাজিক ও সাংসারিক ক্ষেত্রে অস্থিরতা প্রকাশ পায়, বাড়ে বিশৃঙ্খলা, অরাজকতা, দুর্ঘটনা। অন্যদিকে এবার দেবী বিদায় নেবেন দোলায় চড়ে। যার ফলে জগতে মড়ক ব্যাধি বাড়বে।
এদিকে পূজাকে আনন্দমুখর করে তুলতে মণ্ডপে বর্ণাঢ্য প্রস্তুতি ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে। বৃষ্টির ভ্রূকুটি সত্বেও বইছে উৎসবের আমেজ। ঢাক -ঢোল কাঁসা এবং শঙ্খের আওয়াজে মুখরিত হয়ে উঠছে বিভিন্ন মণ্ডপ। রামকৃষ্ণ মিশনের নির্ঘন্টে বলা হয়েছে, আজ সোমবার সকাল ৬টা ৩০ মিনিটে কল্পারম্ভ এবং বোধন আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্যদিয়ে উৎসবের প্রথম দিন ষষ্ঠী পূজা সম্পন্ন হবে। সকাল থেকে চণ্ডীপাঠে মুখরিত থাকবে মন্ডপ এলাকা। উৎসবের দ্বিতীয় দিন আগামীকাল মঙ্গলবার মহাসপ্তমীর পূজা অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৬টায়। বুধবার মহাঅষ্টমীর পূজা আনুষ্ঠিত হবে সকাল ৯টায় এবং বেলা ১১টায় অনুষ্ঠিত হবে কুমারী পূজা। সন্ধিপূজা শুরু হবে দুপুর ১২টা ৫৬ মিনিটে। বৃহষ্পতিবার সকাল ৬টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে নবমী পূজা। পরদিন শুক্রবার সকাল ৭টায় পূজা সমাপন ও দর্পণ বিসর্জন হবে সকাল ৮টায়।
জেএমসেন হল, রামকৃষ্ণ সেবাশ্রম, চট্টেশ্বরী কালীবাড়ি, পাথরঘাটা শান্তনেশ্বরী মাতৃমন্দির, সদরঘাট কালীবাড়ি, কৈবল্যধামসহ নগরীর ঐতিহ্যবাহী মণ্ডপগুলোতে এবারও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের সাথে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। নগরীর রাজাপুকুর লেইন, কুসুমকুমারী স্কুল, হাজারীগলি, নালাপাড়া, রাজাপুর লেইন, টেরিবাজার, পাথরঘাটা সতীশবাবু লেইন, আগ্রাবাদে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও সাড়ম্বরে দুর্গোৎসবের আয়োজন করা হয়েছে।
জে এমসেন হল প্রাঙ্গণে আজকের কর্মসূচি: জেএমসেন হল প্রাঙ্গণে আজকের অনুষ্ঠানমালায় রয়েছে- মাঙ্গলিক পূজা অর্চনা ষষ্ঠী পূজা। সকাল ৯টায় ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প, দুপুর ২টায় মাতৃসম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন মহানগর পূজা পরিষদের মহিলা সম্পাদিকা রুমকি সেনগুপ্ত। উদ্বোধন করবেন মহানগর পূজা পরিষদের সভাপতি এডভোকেট চন্দন তালুকদার। প্রধান অতিথি থাকবেন চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহেদা ইসলাম। বিশেষ অতিথি থাকবেন প্রফেসর ড. সুপ্তিবণা মজুমদার, বন্দনা দাশ, মহিলা কাউন্সিলর নিলু নাগ। স্বাগত বক্তব্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্রীপ্রকাশ দাশ অসিত। বিকেল ৪টায় একক সংগীতানুষ্ঠান। বিকাল ৫টায় দলীয় সংগীত ও নৃত্যানুষ্ঠান, সন্ধ্যা ৬টায় প্রতিমা মঞ্চের আবরণ উন্মোচন। আবরণ উন্মোচন করবেন, শ্রীমৎ স্বামী সুদর্শনানন্দ পুরী মহারাজ। সন্ধ্যা ৭টায় আলোচনা সভা, বস্ত্র ও পুনস্কার বিরতণ অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, সম্মানিত অতিথি থাকবেন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি রাখাল দাশগুপ্ত, প্রধান বক্তা থাকবেন রাউজান পৌরসভার মেয়র দেবাশীষ পালিত। বিশেষ অতিথি থাকবেন চট্টগ্রাম প্রেম ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী, কাউন্সিলর াজমুল হক ডিউক। রাত ৯টায় সংগীতানুষ্ঠান “জগতজননী মা” পরিবেশনায় : বেতার-টিভি শিল্পীবৃন্দ।
দক্ষিণ জেলা পূজা পরিষদের সংবাদ সম্মেলন : মেধস আশ্রমকে জাতীয় আশ্রম ঘোষণাসহ ১৫ দফা দাবিতে গতকাল বিকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে দক্ষিণ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক পরিমল দেব।
সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট চন্দন তালুকদার। এতে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সভাপতি জিতেন কান্তি গুহ, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা. দিলীপ ভট্টাচার্য্য, প্রাক্তন সভাপতি বাবুল ঘোষ (বাবুন), অ্যাড. কবিশেখর নাথ পিন্টু, ড. বিপ্লব গাঙ্গুলি, সহ-সভাপতি ডা. বাবুল চৌধুরী, ঝুন্টু চৌধুরী, ডা. কাজল কান্তি বৈদ্য, প্রাক্তণ সাধারণ সম্পাদক অরুপ রতন চক্রবর্তী, প্রণব দাশগুপ্ত, তাপস কুমার দে, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অরূপ সেন, ভবশংকর ধর, চন্দন পালিত, এড. নিলু কান্তি দাশ প্রমুখ।
দুর্গাৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভারপ্রাপ্ত মেয়র : চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পূজা উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে শারদীয় দুর্গোৎসব গতকাল রোববার থেকে নগরীর জামালখান কুসুম কুমারী সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে শুরু হয়েছে। ভারপ্রাপ্ত মেয়র ড.নিছার উদ্দিন আহমদ মঞ্জু মঙ্গলপ্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে শারদীয় দুর্গোৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। এই সময় ভারপ্রাপ্ত মেয়র ছাড়াও ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার অনিন্দ্য ব্যানার্জি, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ড.মুহম্মদ মুস্তাফিজুর রহমান, রামকৃষ্ণ সেবা আশ্রমের মহারাজ কৃপারুপানন্দ, মহানগর পূজা পরিষদের সভাপতি এড.চন্দন তালুকদার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী হারাধন চৌধুরী, রতন চৌধুরী সহ বিপুল সংখ্যক পূজাার্থী উপস্থিত ছিলেন। এ উপলক্ষে আয়োজিত সভায় কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন সভাপতিত্ব করেন। পরে ভারপ্রাপ্ত মেয়র ৫ শ অসহায় মানুষের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ করেন। সভা সঞ্চালনায় ছিলেন সিটি কর্পোরেশন পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব কুমার চৌধুরী।
পাঁচলাইশ থানা পূজা পরিষদের মতবিনিময় : শারদীয় দুর্গা পূজা উৎসব শান্তিপূর্ণ ও নির্বিঘ্নে উদযাপন করতে পাঁচলাইশ থানা পূজা উদযাপন কমিটির এক মত বিনিময় সভা ৮নং শুলকবহর ওয়ার্ড কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুলকবহর কাউন্সিলর মোহাম্মদ মোরশেদ আলমের সাথে পাঁচলাইশ থানা আওতাধীন মোট ১০টি পূজা মণ্ডপ পরিচালনা কমিটির এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। পাঁচলাইশ থানা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রুবেল শীলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শুভাশীষ চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ৮নং শুলকবহর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ মোরশেদ আলম। সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি আতিকুর রহমান, পাঁচলাইশ থানা পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি বাবুল দত্ত, চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদ সদস্য দেবাশীষ নাথ দেবু, দীনবন্ধু দাশগুপ্ত, ননী গোপাল দেবনাথ, প্রিয়লাল গোস্বামী, পাঁচলাইশ থানা পূজা উদযাপন কমিটির সাবেক সভাপতি বিশ্বজিৎ দে, সাবেক সাধারণ সম্পাদক যীশু নাথ,উপদেষ্টা সুজিত দাশ, ধীমান সেন।
সভায় বিভিন্ন পূজা মন্ডপ থেকে বক্তব্য রাখেন শ্যামল দাশ, বাবুল দাশ, নটরাজ দাশগুপ্ত, কৌশিক দেব বাপ্পি, বিপ্লব চক্রবর্তী রনি, বিকাশ শীল,লিটন দাশ, কৃষ্ণ বিশ্বাস, লিপু চৌধুরী, সুবল দাশ, ভবতোষ দাশ, জনি সেন, সেন্টু দাশ, রাজীব কুমার, শুভাশীষ চৌধুরী ছোটন, সুমন পাল, দেবরাজ দেবু, মিঠু দে, ইমন দেসহ প্রমুখ। মতবিনিময় সভা শেষে ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ মোরশেদ আলম প্রতিটি পূজা মণ্ডপের নিরাপত্তার স্বার্থে পূজা মন্ডপ কমিটির নিকট মেটাল ডিটেক্টর মেশিন ও সাথে নগদ অর্থ প্রদান করেন।

x