সাহিত্যিক সম্পাদক সজনীকান্ত দাস

রবিবার , ২৫ আগস্ট, ২০১৯ at ১০:২১ পূর্বাহ্ণ
19

বিশ শতকে বাংলা সাহিত্য অঙ্গনে সজনীকান্ত দাস প্রধানত পরিচিত ছিলেন সাহিত্য সমালোচক হিসেবে। পত্রিকা সম্পাদনা ও পরিচলনায়ও খ্যাতিমান ছিলেন তিনি। তাঁর সমালোচনার প্রধান বৈশিষ্ট্য ছিল ব্যঙ্গ ও বিদ্রুপ। আজ তাঁর ১১৯তম জন্মবার্ষিকী।
সজনীকান্ত দাসের জন্ম ১৯০০ সালের ২৫ আগস্ট পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার বেতালবন গ্রামে। বিখ্যাত পত্রিকা ‘শনিবারের চিঠি’র সম্পাদক হিসেবেই তাঁর প্রধান পরিচয়। এই পত্রিকায় তাঁর ব্যঙ্গবাণের শিকার হয়েছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম সহ আধুনিক সাহিত্যের বহু খ্যাতিমান লেখক। দিনাজপুর জেলা স্কুল থেকে প্রবেশিকা, বাঁকুড়া ওয়েসলিয়ান মিশনারি কলেজ থেকে বি.এসসি পাশ করে এম.এসসি পড়বার সময় পাঠ অসমাপ্ত রেখে ‘শনিবারের চিঠি’তে যোগ দেন। এ সময় তিনি ‘ভাবকুমার’ ছদ্মনামে লিখতেন। পরবর্তী সময়ে তিনি এই পত্রিকার সম্পাদক ও পরিচালক হন। ‘প্রবাসী’, ‘বঙ্গশ্রী’, ‘দৈনিক বসুমতী’ প্রভৃতি পত্রিকায় সম্পাদক হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। কবি ও গবেষক হিসেবেও তাঁর স্বীকৃতি মেলে। প্রাচীন বাংলা সাহিত্যের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে গবেষণা তাঁর সাহিত্য কৃতীর উল্লেখযোগ্য দিক। তবে বিদ্রুপাত্মক আক্রমণ তাঁর সাহিত্য সমালোচনার প্রধান বৈশিষ্ট্য। তাঁর রচিত গ্রন্থগুলোর মধ্যে ‘মনোদর্পণ’, ‘পথ চলতে ঘাসের ফুল’, ‘অজয়’, ‘ভাব ও ছন্দ’, ‘বাংলা গদ্য সাহিত্যের ইতিহাস’, ‘পঁচিশে বৈশাখ’, ‘অঙ্গুষ্ঠ’, ‘বঙ্গ রঙ্গভূমি’, ‘রবীন্দ্রনাথ : জীবন ও সাহিত্য’, ‘পান্থপাদপ’ প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। ১৯৬২ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি সজনীকান্ত দাস প্রয়াত হন।

x