সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোরশেদ খানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

সিটিসেলের নামে ব্যাংক থেকে ৩৮৩ কোটি টাকা ঋণ আত্মসাতের মামলা

আজাদী অনলাইন

সোমবার , ১০ জুন, ২০১৯ at ৯:৩৯ অপরাহ্ণ
1005

সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এম মোরশেদ খানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মোবাইলে অপারেটর সিটিসেলের নামে ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে ৩৮৩ কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় তার বিরুদ্ধে এ নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়।

আজ সোমবার (১০ জুন) পুলিশের বিশেষ শাখার পুলিশ সুপার (ইমিগ্রেশন) বরাবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক মো. সামছুল আলমের সই করা এক চিঠিতে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানানো হয়। বিডিনিউজ

চিঠিতে বলা হয়, ‘অভিযোগ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি (এম মোরশেদ খান) সপরিবারে দেশত্যাগ করে অন্য দেশে যাওয়ার চেষ্টা করছেন বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে। সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে অভিযোগ সংশ্লিষ্ট ওই ব্যক্তির বিদেশ গমন রহিত করা আবশ্যক।’

২০১৭ সালের ২৮ জুন রাজধানীর বনানী থানায় দুদকের করা এ মামলায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোরশেদ খান, তার স্ত্রী নাছরিন খান, সিটিসেলের এমডি মেহবুব চৌধুরীসহ মোট ১৬ জনকে আসামি করা হয়।

সিটিসেলের নামে এবি ব্যাংক থেকে অনিয়মের মাধ্যমে ৩৮৩ কোটি ২২ লাখ টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয় আসামিদের বিরুদ্ধে।

মোবাইল ফোন অপারেটর সিটিসেলের মূল কোম্পানির নাম প্যাসিফিক বাংলাদেশ টেলিকম লিমিটেড (পিবিটিএল)। এম মোরশেদ খান এটির চেয়ারম্যান, তার স্ত্রী নাছরিন খানও একজন পরিচালক। মোরশেদ খান এবি ব্যাংকেরও চেয়ারম্যান ছিলেন।

বাংলাদেশের প্রথম টেলিকম অপারেটর সিটিসেল ২০১৬ সালে দেনার দায়ে বন্ধ হয়ে যায়।

x