সাকিবের বদলি হিসেবে যাচ্ছেন তাইজুলই

স্পোর্টস ডেস্ক

মঙ্গলবার , ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ at ৪:৩৬ পূর্বাহ্ণ
59

ওয়ানডে অভিষেকেই হ্যাটট্রিক করে রঙিন পোশাকে নিজের দাপুটে আগমনি বার্তা দিয়েছিলেন বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। কিন্তু এরপর থেকে নিয়মিত হতে পারেননি সীমিত ওভারের ক্রিকেটে। বারবার টিম ম্যানেজমেন্টের নতুনদের নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষার কবলে পড়েছেন তাইজুল। এক সময়তো ওয়ানডে ক্রিকেটের দল থেকে বাদই পড়লেন। গায়ে লেগে গেল টেস্ট ক্রিকেটারের তকমা। তবে শেষ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে সেই তাইজুলের কাছেই ফিরে যেতে হচ্ছে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্টকে। ২০১৪ সালে ঢাকায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে অভিষিক্ত এই বাঁহাতি স্পিনার এ পর্যন্ত মাত্র ৪টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত এই সংস্করণে সবশেষ তাকে বল হাতে দেখা গিয়েছে ২০১৬ সালে ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে। রঙিন পোশাকে দিনের পর দিন অবজ্ঞা অবহেলায় আজ তিনি কেবলই অলিখিত টেস্ট স্পেশালিস্ট।
এই টেস্ট স্পেশালিস্টকেই এখন ওয়ানডে সিরিজে ফেরাতে টিম ম্যানেজমেন্টের যত পরিকল্পনা। সদ্যসমাপ্ত বিপিএলের ফাইনালে বাঁহাতের তর্জনিতে আঘাত পাওয়ায় নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ থেকে ছিটকে গেছেন লাল সবুজের টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি অধিনয়াক সাকিব আল হাসান। তার বদলি হিসেবে একজন বাঁহাতি স্পিনার খুঁজছে টাইগার ম্যানেজমেন্ট। যেখানে সর্বাগ্রে বিবেচিত হচ্ছে তাইজুলের নাম। ঘুরে ফিরে তার নামটিই আসছে সবার আগে। কারণটিও পরিষ্কার। সাকিবের বদলি হিসেবে একজন বাঁহাতি স্পিনার আজও তারা প্রস্তুত করতে পারেনি বাংলাদেশ । আরাফাত সানির মধ্যে বেশ সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু মাঠের বাইরের নানা কান্ডে তিনি এক রকম হারিয়ে গেছেন। মোশাররফ হোসেন রুবেলও তাই। যদিও তার খেলা ম্যাচের সংখ্যা আরাফাত সানির তুলনায় খুবই কম। এরপর তরুণ সানজামুল ইসলামকে গড়ে তোলার চেষ্টা হয়েছিলো। কিন্তু অজানা কোন কারণে তিনিও দৃশ্যপট থেকে উধাও।
অপরদিকে আরেক বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপুকে বেশ কয়েকটি সিরিজে খেলানো হয়েছিল। কিন্তু তার খরুচে বোলিং টিম ম্যানেজমেন্টের আস্থা হারিয়েছে। কাজেই তাইজুলের কাঁধেই ভরসা রাখছে টিম ম্যানেজমেন্ট। এই অবস্থায় চ্যালেঞ্জটি অবশ্য তাইজুল নিতেই পারেন। ওয়ানডে সিরিজে কিউদের বিপক্ষে পারফর্ম করে সাদা পোশাকের অনুরুপ রঙিন পোষোকেও লাল সবুজের দলে অপরিহার্য হয়ে উঠতে পারেন। যদিও তাইজুলের নিউজিল্যান্ডে দলের সাথে যোগ দেয়ার বিষয়টি এখনো নিশ্চিত হয়নি। গতকাল নিউজিল্যান্ডে টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি এবং হেড কোচ স্টিভ রোডস আলোচনায় বসার কথা ছিল। আর সে আলোচনা শেষে জানাবেন দলে তাইজুলের প্রয়োজনীতা আদৌ আছে কী না। থাকলে দু’একদিনের মধ্যেই বিমানে চাপবেন ২৭ বছর বয়সী এই বাঁহাতি স্পিনার। যদিও নিউজিল্যান্ডের বাউন্সি উইকেটে তাইজুলের স্পিন কতটা কার্যকর হবে সেটাও ভাববার বিষয়। তারপরও সাকিবের একজন বদলিতো দরকার। যদিও সাকিবের বদলি কখনোই একজন দিয়ে হয়না। কারন তার ব্যাটিং এবং বোলিং দুটোই খুব গুরুত্বপূর্ণ বাংলাদেশ দলের জন্য। আর তাইজুল হয়তো একটি অংশ পূরণ করতে পারবেন।

x