সাইড বেঞ্চ পরখ করার ম্যাচ আজ টাইগারদের

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বুধবার , ১৫ মে, ২০১৯ at ৫:১০ পূর্বাহ্ণ
85

বিশ্বকাপ স্কোয়াডের ১৫ জন ছাড়াও বাড়তি চার জন নিয়ে আয়ারল্যান্ডে গেছে বাংলাদেশ দল। লক্ষ্য বিশ্বকাপের বাইরে থাকাদের পরখ করে নেওয়া। যদি কোন সুফল পাওয়া যায়। বিশ্বকাপ স্কোয়াডে ঢুকার মত পারফরম্যান্স যদি মিলে কারো কাছে। তাহলে হয়তো পরিবর্তন আনা যাবে বিশ্বকাপের দলে। যদিও সাইড বেঞ্চ পরখ করার কাজটা আগের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই করতে চেয়েছিল টাইগাররা। কিন্তু আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়ে গেলে সে কাজটা পরের ম্যাচে করা সম্ভব হনি। তবে ফিরতি লড়াইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৫ উইকেটে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করার পর সে সাইড বেঞ্চ পরখ করার কাজটা সেরে নিতে চায় টাইগাররা আজকের ম্যাচেই। যেহেতু ফাইনালটা নিশ্চিত হয়ে গেছে, সেহেতু এখন ফাইনালের স্কোয়াডকে রেখে বাকিদের পরখ করে নিতে চায় বাংলাদেশ আজকের ম্যাচে। গুরুত্বহীণ এবং কেবলই আনুষ্টানিকতার সে ম্যাচে আজ স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডের মুখোমুখি হবে মাশরাফির দল। তবে আগের ম্যাচে টানা দুইবার ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল নিশ্চিত করলেও গতকালও বিশ্রাম ছিলনা টাইগারদের। আইরিশ সময় দুপুর ১২ টায় (বাংলাদেশ সময় বিকেল পাঁচটায়) হয়েছে টিম মিটিং। আর স্থানীয় সময় দুপুর দুইটার পরে অর্থাৎ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যার পর অনুশীলন মাঠে নেমে পড়ে মাশরাফির দল।
আগের ম্যাচে দাপুটে এক জয়ে ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে গেছে টাইগারদের। তবে এই স্কোয়াডে আরও চার-পাঁচজন ক্রিকেটার আছেন, যারা এখনো এক ম্যাচেও সুযোগ পাননি। আজ বুধবার আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে রাউন্ড রবিন লিগের ফিরতি তথা শেষ ম্যাচে দলে কোন পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হবে কি না বা যারা এখনো সুযোগ পাননি, তাদের কাউকে সুযোগ দেয়া হবে কি না তেমন প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছিল সবার মাঝে। সে সব প্রশ্নের জবাবে টাইগারদের প্রধান নির্বাচক এবং যিনি বর্তমানে আয়ারল্যান্ডে দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন সে মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানালেন আমরা ক্রিকেটারদের মানসিকভাবে চাঙ্গা, ফুরফুরে ও আত্মবিশ্বাসী রাখার প্রাণপণ চেষ্টা করছি। ফাইনালেও যাতে দল সামর্থ্যের সেরাটা উপহার দিতে পারে সে চেষ্টাই করা হচ্ছে। কারণ আমরা এরই মধ্যে একাদিক ত্রিদেশীয় ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে গেলেও একটিতেও শিরোপা জিততে পারিনি। বেশ কয়েকটিতে শিরোপার একেবারে কাছে গিয়ে ফিরে এসেছি। তাই এবারে আর খালি হাতে ফিরতে চাইনা।
প্রধান নির্বাচক এবং দলীয় ম্যানেজার আরো বলেন, ফাইনালের আগে টিম মিটিং হয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে আমরা তিনজনকে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে রবীন লিগের শেষ ম্যাচে দলভুক্ত করার চিন্তা করছি। তারা হলো লিটন দাস, মোসাদ্দেক হোসেন এবং রুবেল হোসেন। এই তিনজনের আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে খেলার সম্ভাবনা খুব বেশি। তবে কাদের পরিবর্তে এই তিনজকে খেলানো হবে তা এখনো ঠিক হয়নি। সেটা টিম মিটিং কিংবা প্র্যাকটিসের পর ঠিক করা হবে। তাহলে কি বাকি চারজনের আর মাটে নামার সুযোগ মিলছেনা। বাংলাদেশ দল চাইছে এই মুহূর্তে যারা বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রয়েছে তাদের অনুশীলন করাতে। কারন আয়ারল্যান্ড থেকে ফাইনাল শেষে টাইগাররা চলে যাবে ইংল্যান্ডে। সেখানে বেশ কিছুদিন অনুীশলন করবে কন্ডিশনের সাতে মানিয়ে নিতে। ফলে বাকি চারজনের হয়তো মাঠে নামা হবে না। ১৫ সদস্যের পর দলে ডাক পাওয়া ইয়াসির আলি রাব্বি, নাঈম হাসান, তাসকিন আহমেদ এবং ফরহাদ রেজাকে হয়তো ভ্রমন করেই ফিরে আসতে হবে দেশে। কারন এ মুহুর্তে তাদের বাজিয়ে দেখার কোন সুযোগ দেখছেননা টিম ম্যানেজম্যান্ট। কারন লক্ষ্য এখন কেবলই সামনের বিশ্বকাপ। কাজেই তাদের পরখ করে দেখাটা জরুরি বেশি। যদিও আয়ারল্যান্ডের তিনজাতি টুর্নামেন্টের ফাইনালটা সবার আগে গুরুত্ব পাচ্ছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টানা দুই ম্যাচে একেবার েসহজেই হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে টাইগাররা। শেষ ম্যাচ অর্থাৎ ফাইনাল ম্যাচেও তেমন পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে চাইছে টাইগাররা। আর সেটা পারলেই প্রথমবারের মত কোন ট্রফি জেতার স্বপ্ন পুরণ হবে বাংলাদেশের। আর ত্রিদেশীয় সিরিজের ট্রফি জিতে সুখ স্মৃতি নিয়েই ইংল্যান্ডের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিতে চায় বাংলাদেশ। কাজেই সেখানে অন্যদের পরখ করে দেখার সুযোগ খুব একটা নেই। কেবল বিশ্বকাপ স্কোয়াডের সদস্যরাই এখন গুরুত্ব পাচ্ছে।

x