সমাজের পিছিয়ে থাকা মানুষদের ভাগ্যোন্নয়নই লায়নিজমের মূল মন্ত্র

মেট্রোপলিটন লায়ন্স ক্লাবের দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠানে বক্তারা

আজাদী প্রতিবেদন

শনিবার , ১১ আগস্ট, ২০১৮ at ৪:৩৭ পূর্বাহ্ণ
13

লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগং মেট্রোপলিটনের ২০১৮২০১৯ সেবাবর্ষের নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব হস্তান্তর ও গ্রহণ অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, বিপুল সংখ্যক মানুষ দরিদ্রসীমার নিচে বাস করেন। প্রতিদিন রাতে না খেয়ে বা আধা পেট খেয়ে ঘুমাতে যান বহু মানুষ। সমাজের কম সৌভাগ্যবান এসব মানুষকে কিছুটা স্বস্তি দেয়া গেলেই লায়নিজমের উদ্দেশ্য বাস্তবায়িত হবে। সমাজের অবহেলিত এবং পিছিয়ে থাকা মানুষদের ভাগ্যোন্নয়নই লায়নিজমের মুল মন্ত্র।

গতকাল বিকেলে নগরীর জাকির হোসেন রোডস্থ চট্টগ্রাম লায়ন্স ফাউন্ডেশন ভবনের প্রকৃতি সম্মেলন কক্ষে দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রথম পর্বে সভাপতিত্ব করেন বিদায়ী সভাপতি লায়ন একেএমএ মুকিত। দ্বিতীয় পর্বে সভাপতিত্ব করেন ক্লাব প্রেসিডেন্ট লায়ন সাংবাদিক হাসান আকবর। শুরুতে কোরান তেলোয়াত করেন লায়ন মোহাম্মদ ওসমান ফারুকি। শপথবাক্য পাঠ করান লায়ন আবিদ। ক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা গভর্নর লায়ন মোহাম্মদ নাসিরউদ্দীন চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন ফার্স্ট ভাইস ডিস্ট্রিক গভর্নর লায়ন কামরুন মালেক। সাবেক গভর্নরদের মধ্যে, দৈনিক আজাদী সম্পাদক লায়ন এম এ মালেক, পিডিজি লায়ন এ কাইয়ুম চৌধুরী, পিডিজি লায়ন সিরাজুল হক আনসারী বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে কেবিনেট সেক্রেটারি লায়ন জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী এবং কেবিনেট ট্রেজারার লায়ন মোসলেহ উদ্দীন খান, জিএমটি ডিস্ট্রিক্ট কোঅর্ডিনেটর লায়ন জাহাঙ্গীর মিয়া, রিজিয়ন চেয়ারপার্সন হেড কোয়ার্টার১ লায়ন আতাউর রহমান, ক্লাব সেক্রেটারি লায়ন এম ফজলে করিম লিটন বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে ক্লাবের বর্তমান প্রেসিডেন্ট লায়ন সাংবাদিক হাসান আকবর নির্বাচিত হওয়ায় অভিনন্দন জানানো হয়। তাকে গং ও গ্যাবল প্রদান করে ক্লাবের দায়িত্ব হস্তান্তর করা হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তারা নবনির্বাচিত কমিটির দক্ষ নেতৃত্বে এই বছরের ডিস্ট্রিক্ট গভর্নরের ডাক ‘সময়ের সাথে সেবার মাঝে’ এর উপর ভিত্তি করে অসহায় মানুষদের ভগ্যোন্নয়নে ব্যাপক কার্যক্রম পরিচালনার উপর গুরুত্বারোপ করা হয়। ক্লাবের পক্ষ থেকে দেশের গরীব, অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর কল্যাণে বিভিন্ন সেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে ক্লাবের ঐতিহ্য রক্ষা এবং বিশ্ব লায়নিজমের পতাকাকে সমুন্নত রাখা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

x